৯ জানুয়ারি ২০১৮


শাবি শিক্ষার্থীদের ভবন অবরোধ

শেয়ার করুন

 শাবি প্রতিনিধি

বিভাগের নাম ফলক সরানোর ঘটনায় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক একাডেমিক ভবন অবরোধ করে প্রতিবাদে করেছে বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত একাডেমিক ভবন-বি এর সামনে আন্দোলনরত শিক্ষার্খীরা অবস্থান নিয়ে অবরোধ করে রাখলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের প্রবেশে বাধা সৃষ্টি হয়।

বাংলা বিভাগ ছাড়া চারতলা বিশিষ্ট একাডেমিক বি-তে রসায়ন বিভাগ ও কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড পলিমার সায়েন্স বিভাগ রয়েছে।

রসায়নের বিভাগের পাশাপাশি একাডেমিক ভবন-বি এর তৃতীয় ও চতুর্থ তলায় একটি অফিস ও তিনটি ক্লাস রুম ও দুটি শিক্ষকদের বসার রুম রয়েছে বাংলা বিভাগের।

অবরোধকারী শিক্ষার্থীদের দাবি, ভবন-বি এর তৃতীয় তলায় সিঁড়ির সম্মুখে দীর্ঘদিন যাবত কাঁচ উপরে খোদাই করে লেখা বাংলা বিভাগ নাম ফলকটি উঠিয়ে দিয়ে কোন ধরনের প্রয়োজন ছাড়াই ওইস্থানে রসায়ন বিভাগের শিক্ষকরা বসার জন্য রুম তৈরি করছেন।

দুপুর ১২টার দিকে বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. শরদিন্দু ভট্টাচার্য এসে  বিক্ষুব্দ শিক্ষার্থীদের ‘বিকেলে মধ্যে উপাচার্য বিষয়য়টি সমাধান করবেন’ আশ্বাস দিলে তারা অবরোধ থেকে সরে আসে।

অবরোধকারী শিক্ষার্থী ও বাংলা সমিতির সহ-সভাপতি রানা নাবিদ বলেন, “জোর করে একটি বিভাগের নাম ফলক খুলে ফেলার মাধ্যমে পুরো বিভাগকে অবমাননা করা হয়।”

উপাচার্যের আশ্বাসে তারা আন্দোলন থেকে সরে এসেছেন। তবে সন্তোষজনক সমাধান না হলে তারা আবার আন্দোলনে নামবেন বলে জানান রানা নাবিদ।।

বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. শরদিন্দু ভট্টাচার্য অভিযোগ করে বলেন, রসায়ন বিভাগের শিক্ষকরা কোন ধরনের আলোচনা ছাড়াই আমাদের বিভাগের লেখা নাম ফলক উঠিয়ে দিয়ে তাদের বসার জন্য রুম তৈরি করছেন, এটা শুভকর নয়।

তিনি বলেন, আমি তাদের লিখিত ও মৌখিক উভয়ভাবে এ কাজ না করার জন্য অনুরোধ করেছি। তারা সেটা উপেক্ষা করে নিতান্ত জোর করে বাংলা বিভাগের নাম ফলক উঠিয়ে দিয়েছেন।

তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করছেন রসায়ন বিভাগের প্রধান ড. মোঃ আব্দুস সোবহান। তিনি বলেন, “বাংলা বিভাগের প্রধানের সাথে দেখা হলে আমি তখন উনাকে মৌখিকভাবে তাদের বিভাগের নাম ফলক উঠিয়ে নিতে বলি।”

অধ্যাপক সোবহান বলেন, “নাম ফলকটি রসায়ন বিভাগের ল্যাবরেটরি রুমের দেয়ালে লাগানো ছিল। রুম আমাদের হওয়ায় দেয়ালও আমাদের হবে, এটাই স্বাভাবিক। আমারা বিভাগের শিক্ষকদের রুম সঙ্কট নিরসনে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারের অনুমতি নিয়েই নাম ফলক উঠিয়ে রুমের কাজ করছি।”

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, “একটা বিভাগের নামফলক উঠিয়ে দিয়ে আরেকটা বিভাগ রুম তৈরি করতে পারেনা । আমি দুই বিভাগের প্রধানের সাথে কথা বলে শিগগির এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করব।”

(আজকের সিলেট/প্রতিনিধিি/এইচআই/৮ জানুয়ারি/ঘ.)

শেয়ার করুন