আজ মঙ্গলবার, ১৮ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং

বিমানবন্দরে কন্ট্রাক্ট বানিজ্য বন্ধ করুন, আবুধাবীতে প্রবাসী ব্যবসায়ীবৃন্দ

  • আপডেট টাইম : November 8, 2020 12:57 PM

মধ্যপ্রাচ্য অফিসঃ বাংলাদেশী শ্রমিকরা কঠোর পরিশ্রম করেন। ভিজিটে এসে ভিসা লাগানোর সুযোগ থাকায় জনশক্তি রপ্তানিও বাড়বে। এতে দেশে রেমিটেন্স এর পরিমান ও বাড়বে। আমিরাতের সরকারের দেওয়া সুযোগ কাজে লাগাতে চাই আমরা। আমরা চাই আমাদের কোম্পানিতে বাংলাদেশীরাই প্রধান্য পাবে। বিমানবন্দরের কিছু অসাধু কর্মচারীদের কারণে বৈধ ভিজিট ভিসা সহ যাবতীয় ডকুমেন্ট থাকা সত্বেও আসতে দেওয়া হচ্ছে না। এসব অসাধু কর্মচারীরা কন্টাক বানিজ্যের মাধ্যমে ভিজিট ভিসার মানুষদের আসতে দিচ্ছে। যারা কন্টাক করছে না তাদের আটকে দিচ্ছে।
 
বাংলাদেশের বিমানবন্দরগুলোতে ভিজিট ভিসাধারী যাত্রীদের বিমানবন্দরের অসাধু কর্মচারীদের দ্বারা হয়রানী ও কন্ট্রাক্ট বানিজ্যের প্রতিবাদে প্রবাসী ব্যবসায়ীবৃন্দের উদ্যোগে সাংবাদিক সম্মেলনে এসব বলেন বক্তারা।
 
শনিবার (৭ই নভেম্বর) আমিরাতের রাজধানী আবুধাবীর একটি রেস্তোরায় আয়োজিত সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জিয়া উদ্দিন তফাদার, আব্দুল মান্নান, আতাউর রহমান আতা, শাহেদ নূর, বেলাল উদ্দিন, মুজিবুর রহমান, জহিরুল ইসলাম, মাহবুব আলম চৌধুরী, আজমল খান, আসাদূর রহমান, তারেক আহমদ, বশির আহমদ, আব্দুল ওদুদ, ফারুক আহমদ, মাছুম আহমদ, আব্দুর রহিম আরো অনেকে।
 
বক্তারা আরো বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার ভিজিট ভিসায় বাংলাদেশীদের আসতে দিচ্ছে। ভিজিট ভিসায় আমিরাতে আসার পর ভিসা চেঞ্জ করে কোম্পানির মাধ্যমে ভিসা বা পার্টনার ভিসা লাগানোর সুযোগ করে দিয়েছে। এই সুযোগ আমরা কাজে লাগাতে চাচ্ছি। কিন্তু বাংলাদেশ এয়ারপোর্টে ভিজিট ভিসা দারীদের আটকে দেওয়া হচ্ছে। এমন অবস্থা চলতে থাকলে অচিরেই আমিরাতে বাংলাদেশের জনশক্তি রপ্তানি ক্ষতিগ্রস্থ হবে। যত দূত সম্ভব এসব সমস্যা সমাধান করে ভিজিট ভিসা ধারীদের আমিরাতে আসতে দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হোক।
 
বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী, বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের দৃষ্টি দেওয়ার জন্য প্রবাসী ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানাচ্ছি।
Print Friendly, PDF & Email
  •  
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ