আজ শনিবার, ১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং

ফাজিলচিস্তে ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত

  • আপডেট টাইম : January 12, 2021 12:51 AM

নিজস্ব প্রতিবেদক : নগরীতে ট্রাক চাপায় লুৎফুর রহমান (২৪) ও সজীব মিয়া (২০) নামে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। নিহত লুৎফুর নগরের ফাজিলচিশত এলাকার বাসিন্দা ও তার গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায় এবং সজীব বনকলা পাড়া এলাকার বাসিন্দা। নিহতরা দু’জনে ছাত্রদলের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

সোমবার রাতে নগরের ফাজিলচিশত এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ জনতা ট্রাকটিতে আগুন ধরিয়ে দেয় এবং আরও ৭টি ট্রাকে অগ্নিসংযোগ করে এবং অন্তত অর্ধশত মালবাহী ট্রাক ভাঙচুর করে।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয়রা জানান, ঘটনার সময় পালসার মোটরসাইকেল (সিলেট-ল-১১-১০৩৪) নিয়ে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে খোশগল্পে ছিলেন দুই বন্ধু লুৎফুর ও সজীব। এমন সময় নগরের আম্বরখানা থেকে মদীনা মার্কেটগামী একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্টো-গ-১৮-৪৫০১) ঘটনাস্থলে পৌছামাত্রা রাস্তার পাশে দাঁড়ানো মোটরসাইকেলটিকে সজোরে ধাক্কা দিলে দুই আরোহী ট্রাকের নিচে পিষ্ট হন।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছার আগেই বিক্ষুব্ধ জনতা ট্রাকে আগুন ধরিয়ে দেয়। এসময় আরও ৪টি ট্রাকে আগুন ধরানো হয়। পোড়ানো হয় ঘাতক ট্রাকটি ছাড়াও (ঢাকা মেট্রো চ ২৪-২০০৯), (বগুড়া ট ১১-১৮৮৫), (ঢাকা মেট্রো ট ১৪-৬৭৭৬) এবং (যশোর ট ১১-২০৫৭) ভাঙচুর করা হয়। এছাড়া আরও অনেক ট্রাক ভাঙচুর করা হয়েছে বলেও জানায় পুলিশ।

এছাড়া ওই সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়লে আটকে যাওয়া অন্তত অর্ধশত গাড়িতে ভাঙচুর করা হয়। খবর পেয়ে দমকল বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌছে গাড়িগুলো ভস্মীভূত হওয়া থেকে রক্ষা করে।

এসএমপির অতিরিক্ত উপ কমিশনার (মিডিয়া) বিএম আশরাফ উল্লাহ তাহের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে দুর্ঘটনার পর চালক-হেলপার পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা সম্ভব হয়নি।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনার পর রাত ১১টার দিকে নিহতদের মরদেহ ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ জনতা ৪টি ট্রাকে আগুন দেয় এবং অনেকগুলো ট্রাক ভাঙচুর করে। দুর্ঘটনার পর মধ্যরাত পর্যন্ত সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে বিক্ষুব্ধ জনতা।

এদিকে, মর্মান্তিক দুর্ঘটনার পর ট্রাক ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় পরিবহণ শ্রমিকরা সিলেটের প্রবেশদ্বার চন্ডিপুল এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে।

দুর্ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ জনতা দাবি তুলে বলেন, নগরের অভ্যন্তর দিয়ে রাতের আধারে ট্রাক বেপরোয়া চলাচল করে। নগরে ট্রাক বন্ধে তারা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Print Friendly, PDF & Email
  •  
  •  
  •  
  •  

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ