বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৩:০৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
চীনে থাকা ১৭১ শিক্ষার্থীকে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী নগরীতে ট্রাক চাপায় প্রাণ গেল রিকশাচালকের সিলেটের ২৯ বিএনপি নেতার জামিন ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ৬ জনই সিলেটের জকিগঞ্জে বাস ধানক্ষেতে পড়ে নিহত ৩, আহত ২৫ খোকার লাশ ঢাকায় ‘জিয়াউর রহমান মুক্তিযোদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসি ছিলেন না’ ভারতকে দোষারোপ না করে নিজেদের দায়িত্বশীল হতে হবে : ড. মোমেন ঈদে পর্যটকশূন্য সিলেট নগরীতে যত্রতত্র কোরবানির পশু জবাই না করার আহ্বান ওসমানীতে ঢাকা ফেরত ২০ ডেঙ্গু রোগী সিলেট কারাগারের ডিআইজি ৮০ লাখ টাকাসহ গ্রেপ্তার ‘ডিজিটাল সিলেট সিটি’ প্রকল্পের উদ্বোধনে দাওয়াত পাননি মেয়র আরিফ! মহানগর যুবলীগের সম্মেলন আজ দক্ষিণ সুরমায় সড়ক দুর্ঘটনায় মা-মেয়ে নিহত নগরের শামীমাবাদে দু’যুবক আটকের ঘটনা পরিকল্পিত ! টিকটক ভিডিও বানাতে সুরমায় ঝাঁপ দেয়া কিশোরের লাশ উদ্ধার সিলেটসহ ১০ জেলায় বন্যা পরিস্থিতি অবনতির শঙ্কা সিলেটে শীর্ষ সন্ত্রাসী বশর গ্রেফতার আ’লীগের উপদেষ্টা হলেন সেই ইনাম আহমেদ চৌধুরী রাজনগর-বালাগঞ্জের লাখো মানুষের স্বপ্ন একটি সেতু তাঁতের কাপড় বুনে স্বাবলম্বী মনিপুরী মুসলিম নারীরা সিলেটে জেএসসিতে পাসের হার ৭৯.৮২% জনসভা করবে না ঐক্যফ্রন্ট, হবে গণসংযোগ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন ১২ প্রার্থী শনাক্তের দ্বিগুণ সুস্থ, মৃত্যু ৫ আটকে গেল কানাইঘাটের মেয়রের শপথ মেজরটিলায় ছাদ থেকে পড়ে প্রবাসীর স্ত্রীর মৃত্যু বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৪ বিলিয়ন ডলার ছাড়াল সাড়ে ৪ কোটি টাকার মাদক দ্রব্য ধ্বংস করলো বিজিবি নবীগঞ্জে দু’পক্ষের সংঘর্ষে মহাসড়ক দেড় ঘন্টা বন্ধ জামিন পেলেন মিলা মিথ্যা প্রচারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন নাসির ভ্যাকসিন নিলেন মেয়র আরিফ ২৫ কিলোমিটারের মধ্যে ২০ বার ইঞ্জিন বিকল ট্রেনের
দ্বৈত ভোটার ঠেকাতে কঠোর ইসি

দ্বৈত ভোটার ঠেকাতে কঠোর ইসি

আজকের সিলেট ডেস্ক : নানা পরিকল্পনা নিয়েও ঠেকানো যাচ্ছে না দ্বৈত ভোটার হওয়ার প্রবণতা। অনেকেই নানা পন্থায় দ্বিতীয়বার ভোটার হওয়ার ‘অপরাধ’ করছেন। এই অবস্থায় আর কোনো ছাড় না দিয়ে কঠোর হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

সূত্রগুলো জানিয়েছেন, বর্তমানে দ্বৈত ভোটার হওয়ার সংখ্যা ৯শ ৩৭ থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৫৭ জন। ইতোমধ্যে মামলা দেওয়া হয়েছে ৫শ ৫৬ জনের বিরুদ্ধে। আরও ২শ জনের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে। গত ১০ বছরে প্রায় ১০ লাখ নাগরিক দ্বৈত ভোটার হওয়ার চেষ্টা করেছেন।

সূত্রগুলো বলছে, করোনা কেলেঙ্গারিতে জড়িত ডা. সাবরিনা ও শাহেদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) জালিয়াতির পর নড়েচড়ে বসে ইসি। সে সময় নির্বাচন কমিশনকে বেশ বিব্রতকর অবস্থাতেও পড়তে হয়। তাই ভবিষ্যতে কেউ যেন কোনোভাবেই এনআইডি জালিয়াতি বা মিথ্যা দিয়ে একাধিকবার ভোটার হয়ে একাধিক এনআইডি নিতে না পারে, সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে চায় ইসি। তাই দ্বৈত ভোটার হওয়া যে ফৌজদারী অপরাধ, সে বিষয়টিও ব্যাপক প্রচারণায় আনতে চায় সংস্থাটি।

ইসির মাসিক সমন্বয় সভায় কার্যবিবরণী থেকে জানা গেছে, দ্বৈত ভোটার হওয়া রোধে প্রচারণা নিয়ে পরিচালক (জনসংযোগে) এসএম আসাদুজ্জমানা বলেছেন, দ্বৈত ভোটার হওয়ার ক্ষেত্রে দণ্ডসমূহ ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রচারের বিষয়ে কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এ বিষয়টি সারা বছরব্যাপী চলবে নাকি বিশেষ সময়ে শুধু ভোটার তালিকা হালনাগাদের সময় চলবে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত প্রয়োজন।

এ প্রসঙ্গে সভায় এনআইডি মহাপরিচালক বলেন, এই প্রচারণা শুধু টিভি চ্যানেলে নয়, এর পাশাপাশি বিভিন্ন উপায়ে দণ্ড উল্লেখ করে লিফলেট, ব্যানারের মাধ্যমে প্রচারণা করতে হবে এবং জেলা ও উপজেলা পরিষদের মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় সভার আলোচ্য বিষয় হিসেবে অন্তর্ভুক্তির জন্য স্থানীয় সরকার বিভাগে ডিওলেটার দেওয়া যেতে পারে।

ইসির তৎকালীন সচিব মো. আলমগীরের গত ৩১ জানুয়ারি স্বাক্ষরিত কার্যবিবরণীতে এ নিয়ে সিদ্ধান্তের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এক্ষেত্রে জেলা ও উপজেলা পরিষদের মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় সভায় দ্বৈত ভোটার হওয়ার শাস্তির বিষয়টি আলোচ্যসূচিতে অন্তর্ভুক্তির জন্য স্থানীয় সরকার বিভাগকে পত্রের মাধ্যমে নির্দেশনা পাঠানোর জন্য এনআইডি অণুবিভাগকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া প্রচারণার বিষয়ে জাতীয় এবং স্থানীয় পর্যায়ে ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় এবং স্থানীয় প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে সম্পৃক্ত করে সারা বছর প্রচারণা কার্যক্রম চালানোর জন্য জনসংযোগ শাখাকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে আঞ্চলিক, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নির্বাচন অফিসসমূহ থেকে লিফলেট বিতরণ ও স্থায়ীভাবে ব্যানার স্থাপনের সিদ্ধান্তও হয়েছে।

ভোটার আইন-২০০৯ এর ১৮ ধারা অনুযায়ী-তথ্য গোপন ও তথ্য গোপন করে দুইবার ভোটার হওয়া ফৌজদার অপরাধ। আইনে এ অপরাধের জন্য ছয়মাসের কারাদণ্ড বা দুই হাজার টাকার জরিমান অথবা উভয়দণ্ডে দণ্ডিত করার বিধান রয়েছে।

ইসি কর্মকর্তারা বলছেন, অনেকেই না বুঝে দুইবার ভোটার হন। সরল বিশ্বাসে যারা এই অপরাধটি করেন, তাদের এতদিন ছাড় দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ভবিষ্যতে এ সুযোগ হয়তো থাকবে না।

Print Friendly, PDF & Email
  •  
  •  
  •  
  •  





কপিরাইট © ২০১১-২০২১ আজকের সিলেট ডটকম-এর সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
Design BY Web Home BD
ThemesBazar-Jowfhowo