৭ আগস্ট ২০১৮


নদী ভাঙ্গনে বিলীন হচ্ছে আজিজপুর-বাংলাবাজার সড়ক

শেয়ার করুন

বালাগঞ্জ প্রতিনিধি : চলতি বছরের বন্যা আর সড়কের পাশে পর্যাপ্ত মাটি ভরাট না থাকায় বিলীন হয়ে যাচ্ছে বালাগঞ্জ উপজেলার আজিজপুর বাংলাবাজার সড়কের প্রায় এক কিলোমিটার এলাকা। উদ্বোধনের মাত্র দেড় বছরের মাথায় স্থানীয় পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়নের প্রধান এ সড়কটির এমন বেহাল দশায় এলাকাবাসীর মধ্যে ব্যাপক হতাশা দেখা দিয়েছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকাবাসী জরুরী ভিত্তিতে সড়ক রক্ষণাবেক্ষণে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দাবি জানিয়েছেন।

সরেজমিনে দেখা গেছে, আজিজপুর-বাংলাবাজার সড়কটি ওসমানীনগর উপজেলার উছমানপুর ইউনিয়ন থেকে বালাগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়ন পর্যন্ত বাস্তবায়িত প্রকল্পের আওতায় রয়েছে। পর্যায়ক্রমে নির্মাণধীন এ প্রকল্পের আজিজপুর-বাংলাবাজার সড়কের (চে: ৪৩৩০-৫৩৩০ মি:) নির্মিত পাকা অংশের কাজের ভিত্তিস্থাপন করেন সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী।

২০১৬ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি ভিত্তি স্থাপনের পর ২০১৭সালের শুরু দিকে কাজ শেষ হয়। কাজ শেষ হবার পর গত বছরের প্রবল বৃষ্টি আর বন্যায় সড়কটি মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এরপর চলিত বছরের বন্যার কারণেও সড়কটি আরও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিশেষ করে সড়কের পাশে পর্যাপ্ত মাটি ভরাট না থাকায় সড়ক দ্রুত বিলীন হয়ে যাচ্ছে। ভাঙ্গনের ফলে সড়কের কোথাও কোথাও প্রশস্ততা কমে এসেছে।

আগামী শুকনো মৌসুমে সড়কে যানবাহন চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। সড়ক রক্ষায় জরুরী ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং এলাকাবাসী জোর দাবি জানিয়েছেন।

পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. ফজির আহমদ বলেন, ২০১৭সালের প্রথম দিকে সড়কের উন্নয়ন কাজ শেষ হওয়ার মাত্র কয়েক মাসের মধ্যেই অতি বৃষ্টি আর ভয়াবহ বন্যায় সড়কটি তলিয়ে যায়। সড়কের পাশে প্রয়োজনীয় মাটি ভরাট না থাকায় সড়কটি দ্রুত বিলীন হয়ে যাচ্ছে। তিনি এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন।

সদ্য বিদায়ী বালাগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মো. জাহিদুল ইসলাম বলেন, চলতি বছর সড়কটির ভাঙ্গন অংশে মাটি ভরাট এবং পুনঃসংস্কারের জন্য প্রস্তাব প্রেরণ করা হয়েছে। বালাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল হক আলাপকালে জানান, তিনি সড়কের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

(আজকের সিলেট/৭ আগষ্ট/ডি/এমকে/ঘ.)

শেয়ার করুন