১১ আগস্ট ২০১৮


নবীগঞ্জে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার, স্বামী ও সতিন আটক

শেয়ার করুন

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি হীরাগঞ্জ বাজার এলাকা থেকে রুমি আক্তার (২৪) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী নূর আলম (৩৫) এবং সতিন রিনা বেগমকে (২৬) আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার দুপুরে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার ছিলিমপুর গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে নূরে আলম নবীগঞ্জের আউশকান্দি এলাকার জেআইসি স্যুট গার্মেন্টেসে চাকরি করতেন। একই প্রতিষ্ঠানে কাজ করার সুবাধে উপজেলার জালালসাফ গ্রামের আশাদমিয়ার মেয়ে রিনার সঙ্গে তার সম্পর্কে গড়ে উঠে। বাসায় এক স্ত্রী ও সাত বছরের সন্তান থাকা সত্ত্বেও রুমিকে বিয়ে করেন নূর আলম। এ নিয়ে তাদের সংসারে প্রায়ই ঝগড়া-বিবাদ লেগে থাকতো।

শনিবার দুপুরে আউশকান্দি এলাকার হীরাগঞ্জ বাজার এলাকায় নূর আলমের দু’তলা বাসার একটি কক্ষে রিনার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পঠিয়ে দেয়।

এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে পুলিশ রুমির স্বামী নূর আলম এবং সতিন রিনা বেগমকে আটক করে। আটক রিনার বাবার বাড়ি চাঁদপুর জেলার মতলব থানার ছোট হলদী গ্রামে।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো. নুরুল ইসলাম বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে রুমির স্বামী ও সতিনকে আটক করা হয়েছে।

আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে আটকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

 

(আজকের সিলেট/১১ আগস্ট/ডি/এমকে/ঘ.)

শেয়ার করুন