১১ আগস্ট ২০১৮


আবারও সিসিকের মেয়র হলেন আরিফ

শেয়ার করুন

ডেস্ক রিপোর্ট : অনেক জল্পনা কল্পনার পর আবারো নগর ভবনের কর্তৃত্ব নিলেন বিএনপি নেতা আরিফুল হক চৌধুরী। শনিবার দ্বিতীয় দফা ভোটগ্রহণ শেষে আরিফকে বেসরকারী ভাবে বিজয়ী ঘোষনা করেছে নির্বাচন কমিশন। স্থগিতকৃত দুটি কেন্দ্রে আরিফ পেয়েছেন ২১০২ ভোট। আর সব কেন্দ্র মিলিয়ে প্রাপ্ত ফলাফলে নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি আওয়ামীলীগের মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের থেকে ৬ হাজার ২০১ ভোট বেশি পেয়ে আরিফ বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

নির্বাচনে সকল কেন্দ্র মিলিয়ে ধানের শীষ প্রতিক নিয়ে আরিফুল হক চৌধুরী পেয়েছেন ৯২ হাজার ৫৯৮ ভোট। আরিফের নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি নৌকা প্রতিক নিয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান পেয়েছেন ৮৬ হাজার ৩৯৭ ভোট।

এদিকে, পুনঃভোটে গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার ছিলেন ২২২১ জন। এর মধ্যে আজ ভোট পড়েছে ১৩১২টি। তন্মধ্যে ধানের শীষে আরিফ পেয়েছেন ১০৪৯ ভোট, নৌকায় কামরান পেয়েছেন ১৭৩ ভোট।
হবিনন্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ধানের শীষে আরিফ পেয়েছেন ১০৫৩ ভোট, নৌকায় কামরান পেয়েছেন ৩৫৪ ভোট।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ জুলাই সিসিকের চতুর্থ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে ১৩৪টি কেন্দ্রের মধ্যে অনিয়মের কারণে দুটি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়েছিল। বাকি ১৩২টি কেন্দ্রে কামরানের চেয়ে ৪৬২৬ ভোটে এগিয়ে ছিলেন আরিফ। তবে স্থগিতকৃত ২৪নং ওয়ার্ডের গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র এবং ২৭নং ওয়ার্ডের হবিনন্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র মিলিয়ে ভোট সংখ্যা ৪৭৮৭ হওয়ায় আরিফকে বিজয়ী ঘোষণা করেনি নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তারা সিদ্ধান্ত নেয় পুনরায় ওই দুই কেন্দ্রে ভোট গ্রহণের।

৩০ জুলাইয়ের ভোটে এগিয়ে থাকার পরও তাই অপোয় ছিলেন আরিফ। শনিবারের অনুষ্ঠিত হওয়া ওই দুই কেন্দ্রের পুনঃভোট নিয়েও অনেকটাই নির্ভার ছিলেন তিনি। কেননা, বড্ড জটিল সমীকরণের মধ্যে আরিফকে টপকে জয় পাওয়া কামরানের জন্য রীতিমতো অসম্ভবই ছিল।

(আজকের সিলেট/১১ আগস্ট/ডি/এমকে/ঘ.)

শেয়ার করুন