২৭ আগস্ট ২০১৮


নগরীতে বড়ছে বেওয়ারিশ কুকুরের উৎপাত

শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : নগরীতে বেওয়ারিশ কুকুরের উৎপাত বেড়েই চলেছে। কুকুরের এমন উৎপাতে লোকজন অতিষ্ঠ হয়ে পপড়লেও এ নিয়ে সংশ্লিষ্টদের কোনো পদক্ষেপ নেই। অবশ্য সিলেট সিটি কর্পোরেশন সূত্র বলেছে, উচ্চ আদালতের নির্দেশনার ফলে বর্তমানে কুকুর নিধন বন্ধ রয়েছে।

ভুক্তভোগী লোকজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, সাম্প্রতিক সময়ে নগরীতে বেওয়ারিশ কুকুরের উৎপাত অস্বাভাবিক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। নগরের বন্দরবাজার, বারুতখানা, জিন্দাবাজার, হাওয়াপাড়া, তাঁতীপাড়া, দাঁড়িয়াপাড়া, চৌহাট্টা, দরগাহ মহল্লা, রাজারগলি, আম্বরখানা, জালালাবাদ আ/এ, সুবিদবাজার পাঠানটুলা, মদীনা মার্কেট, বাগবাড়ী, ওসমানী মেডিকেল এলাকা, মিরাবাজার, শেখঘাট, মুন্সীপাড়া, রিকাবীবাজার, শিবগঞ্জ, টিলাগড়, শাহীঈদগাহ, কাজীটুলা, ইলেকট্রিক সাপ্লাইসহ বিভিন্ন এলাকায় দিনরাত বেওয়ারিশ কুকুরের উৎপাত লক্ষ্য করা গেছে। এসকল এলাকায় দিনে দুপুরে যেমন তেমন রাতের বেলায় চলাফেরা বেশ মুশকিল হয়ে পড়ে।

ভুক্তভোগীরা বলেন, সন্ধ্যার পর পাড়া-মহল্লার পয়েন্টে পয়েন্টে বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রব বাড়তে থাকে। অনেক সময় একাএকা পথ চলতেও ভয় পান অনেকে হাওয়াপাড়ার বাসিন্দা সেলিম আল রাজী জানান, পূর্ব জিন্দাবাজারের উন্দালের সামনে, হাওয়াপাড়া, ডেন্ট্রাল হাসপাতালের সামনে গভীর রাতে ৪টা থেকে ৬টা পর্যন্ত কুকুর পাওয়া যায়। এর ফলে স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক দেখা দেয়।

বিশেষ করে কুকুরের কামড়ের ভয়ে অনেকের মাঝে বেওয়ারিশ কুকুর দেখলেই ভয় আর আতঙ্ক দেখা দেয়। কুকুরের কামড়ে জলাতংক রোগ হয়ে অনেককে অকালে মৃত্যুবরণ করতে হয়েছে।

লোকজন জানান, অতীতে সিটি কর্পোরেশন নিয়মিত বেওয়ারিশ কুকুর নিধন কার্যক্রম পরিচালনা করলেও বিগত কয়েক মাস ধরে এই কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। এই কার্যক্রম বন্ধ থাকায় কুকুরের উৎপাত বাড়ছে বলে ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন।

যোগাযোগ করা হলে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগের পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন বলেন, উচ্চ আদালতের নির্দেশের ফলে কুকুর নিধন বন্ধ রয়েছে। কুকুর নিধন বন্ধে একটি সংগঠন উচ্চ আদালতে রীট করলে এর প্রেক্ষিতে উচ্চ আদালত এই নির্দেশনা দেন।

(আজকের সিলেট/২৮ আগস্ট/ডি/এমকে/ঘ.)

শেয়ার করুন