১১ আগস্ট ২০১৭


অবশেষে বালাগঞ্জে স্থায়ী গরু ছাগলের হাট বসছে

শেয়ার করুন

রজত দাস ভুলন, বালাগঞ্জ থেকে : অবশেষে বালাগঞ্জ উপজেলা সদরে স্থায়ী গরু ছাগলের হাট বসছে, যা দীর্ঘ দিনের একটি প্রত্যাশা ছিল বালাগঞ্জ। দীর্ঘদিন ধওর প্রাচীনতম এই বালাগঞ্জ বাজাওে কোন গরু ছাগলের হাট না থাকায় এলাকার ব্যবসার প্রসার হত না বলে অভিযোগ ছিল বালাগঞ্জবাসীর। তবে অবশেষে আগামীকাল সোমবার থেকে বালাগঞ্জে স্থায়ী গরু ছাগলের হাট বসছে। ইতিমধ্যে হাটের জন্য সকল আইনী কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে।

জানা যায়, স্থায়ী গরু ছাগলের হাটের জন্য সম্প্রতি বালাগঞ্জ বাজার বনিক সমিতির সভাপতি মো মাখন মিয়া ও সদও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান এম এ মতিন জেলা প্রশাসক বরাবওে ১৫ শতক ভূমি দান করেছেন। কিন্তু রেজিস্ট্রেশন এর সময় অর্থ সংকট দেখা দিলে বালাগঞ্জ কৃষকলীগের সভাপতি মো আলাল মিয়া ও বালাগঞ্জ সদর ইউনিয়নের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ রেনু মিয়া সেই অর্থ যোগান দেন। এনিয়ে টেন্ডার আহবান করা হলে ৬টি দরপত্রও দাখিল হয়। পরে মোশাহিদ আলী নামে ৫লক্ষ টাকায় আগামী ৩০ চৈত্র পর্যন্ত ইজারা প্রদান করা হয়।

বালাগঞ্জ বাজার বনিক সমিতির সভাপতি মোঃ মাখন মিয়া জানান, প্রথম দফায় রেজিষ্টি করার সময় বালাগঞ্জ বাজারে ব্যবসায়িদের কাছ থেকে ব্যাপক সহযোগীতা আমরা পাই কিন্তু রেজিষ্ট্রেশন বিধিমোতাবেক না হওয়ায় আবার রেজিষ্ট্রি করতে হয় তখন আলাল মিয়া ৭০ হাজার ও আব্দুল হাফিজ রেনু মিয়া ২০হাজার টাকা দিয়ে আর্থিক ভাবে সহযোগীতা করেন।

বালাগঞ্জ সদর ইউনিয়নের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ রেনু মিয়া ও বালাগঞ্জ কৃষকলীগের সভাপতি মোঃ আলাল মিয়া একই ভাবে বলেন, গরু ছাগলের স্থায়ী হাটবাজার পুনরায় রেজিষ্ট্রেশন করতে তৎকালীন ইউএনও এটিএম আজহারুল ইসলাম আলাল মিয়ার কাছ থেকে ৭০ হাজার ও আমার কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা অনুদান প্রদানের কথা বললে আমরা বৃহৎস্বার্থেই তা মেনে নেই।

বালাগঞ্জ বাজার বনিক সমিতির সাবেক সেক্রেটারি ও উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ জুনেদ মিয়া বলেন বালাগঞ্জ বাসীর দীঘর্দিনের একটি প্রত্যাশা পূরন হল। খুবই আনন্দের সংবাদ বালাগঞ্জ বাসীরজন্য এ বাজারে জন্য যারা কষ্ট করেছেন সবার প্রতি কৃতঞ্জগতা প্রকাশ করছি ও বাজারটি রক্ষায় সকলের সহযোগীতা কামনা করি। সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যানও বালাগঞ্জ বাজার বনিক সমিতির সাবেক সেক্রেটারি এম এ মতিন বলেন, বাজারে বৃহৎ স্বাথেই আমি ও মাখন মিয়া ভুমি রেজিষ্ট্রি করে দেই। সত্যিই আনন্দ লাগছে সবার সহযোগীতার ফলে। বালাগঞ্জ ইউএনও প্রদীপ সিংহ বলেন এ বাজারের একটি অতীত ইতিহাস রয়েছে । নতুন করে স্থায়ী গরুছাগলের হাট বসায় এ এলাকার ব্যবসার প্রসার হবে।

বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবদাল মিয়া বলেন, বালাগঞ্জ বাজারের অতীতের সম্মান যাতে আগামীতে বহমান থাকে এ প্রত্যাশা করি।

 

 

(আজকের সিলেট/১১ আগষ্ট/ডি/ডিটি/এসটি/ঘ.)

শেয়ার করুন