২৬ আগস্ট ২০১৭


দয়ামীর-থানাগাঁও সড়কের বেহাল দশা

শেয়ার করুন

ওসমানীনগর প্রতিনিধি : ওসমানীনগর উপজেলার দয়ামীর-থানাগাঁও লামাপাড়া রাস্তার বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক ভাঙন দেখা দিয়েছে। এতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন এ অঞ্চলের কয়েকটি গ্রামের মানুষ। দীর্ঘদিন ধরে রাস্তাটিতে কোনো ধরনের সংস্কার কাজ করা হয়নি বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করেছেন। চলতি বর্ষা মৌসুমে এই রাস্তার বিভিন্ন স্থানে পিচ উঠে গিয়ে খানাখন্দসহ বিশাল আকারের গর্ত হওয়ায় বাড়ছে জনদুর্ভোগ।

দয়ামীর-লামাপাড়া রাস্তায় সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মৌলভী ফজলুর রহমানের বাড়ির সামন থেকে থানাগাঁও মাদরাসা মার্কেট পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার দূরত্বের রাস্তাটি ভেঙে স্থানে-স্থানে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। থানাগাঁও-দয়ামীর রাস্তাটি এ অঞ্চলের মানুষের মহাসড়কে সঙ্গে সংযোগ বহন করে আসছে। কয়েক বছর পূর্বে নির্মিত এই রাস্তাটি এখন অযতেœ আর অবহেলায় পড়ে আছে। ভারী যান চলাচল আর দীর্ঘদিন ধরে সংস্কারের অভাবে রাস্তাটি স্থান ভেঙে অর্ধেক হয়ে গেছে। আবার কোথাও পিচ উঠে গিয়ে কয়েক ফুট দেবে গেছে।

সম্প্রতি রাস্তাটিতে ভয়াবহ ভাঙন দেখা দিলেও তা সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে না।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, রাস্তাটি প্রায় এক দশক পূর্বে পাকাকরণ করা হয়। এর পরে কয়েকবার লোক দেখানো সংস্কার কাজ করা হলেও বিগত চার বছর ধরে রাস্তাটি তৃতীয় বারের মতো ভগ্নদশায় রূপ নেয়। কিন্তু ভাঙন স্থান মেরামত না করে নাম মাত্র সংস্কার কাজ করে সংস্কারের নামে অর্থ লুটপাট করা হয়েছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুর রকিব ও সোহেল আহমদ বলেন, আমরা অনেক আগ থেকে শুনে আসছি রাস্তার কাজের টেন্ডার হয়েছে। অনেকেই বলেছেন শীঘ্রই কাজ শুরু হবে। কিন্তু আসলেই কি টেন্ডার হয়েছে তা আমরা বলতে পারছি না।

রাস্তাটির দুরবস্থার বিষয়ে স্থানীয় সাংবাদিক এসএম সোহেল জানান, রাস্তা সংস্কারের জন্য স্থানীয় এমপির সাথে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে বার বার যোগাযোগ করা হলেও কার্যকর কোনো উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে না। জনরোষ থেকে নিজেদের বাঁচাত জনপ্রতিনিধিরা টেন্ডারের বিষয়ে আশ্বাস দিয়ে বেড়ালেও সংশ্লিষ্ট দফতর থেকে এবিষয়ে সঠিক কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে উছমানপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ময়নুল আজাদ ফারুক বলেন, রাস্তাটি সংস্কারের বিষয়ে আমি একাধিকবার এমপি সাহেবের সাথে যোগাযোগ করেছি। এই মুহূর্তে রাস্তাটি সংস্কার করা খুবই জরুরী। কিন্তু রাস্তাটির সংস্কারকাজ কখন শুরু হবে তা নির্দিষ্ট করে কেউই বলতে পারছেন না।

ওসমানীনগর উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী মোবারক হোসেন বলেন, দয়ামীর-থানাগাঁও রাস্তাসহ উপজেলার আরো কয়েকটি রাস্তা সংস্কারের জন্য পরিকল্পনা প্রস্তুত করা হয়েছে। এ বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ সরেজমিনে পরিদর্শন করে প্রকল্প অনুমোদন করলে টেন্ডারসহ পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

(আজকের সিলেট/২৬ আগষ্ট/ডি/এমকে/ঘ.)

শেয়ার করুন