২৩ আগস্ট ২০১৭


র‌্যাবের খাচায় গাড়িচোর চক্রের পাঁচ সদস্য, পিকআপ উদ্ধার

শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : সিলেটে গাড়ি চোর চক্রের ৫ সদস্যকে একটি চোরাই গাড়ি সহ আটক করেছে র‌্যাব। আটককৃতরা হচ্ছে- নগরীর মজুমদারী এলাকার মুন্না মিয়ার কলোনীর বাসিন্দা আমানত উল্লাহর পুত্র মোঃ জুবায়ের আহম্মদ ওরফে জুবেদ আহমদ (১৯), আম্বরখানা ওয়ালটন শোরুমের বিপরীতের বিল্ডিংয়ের বাসিন্ধা মোঃ সবুর শেখের পুত্র মোঃ সাত্তার হোসেন (২৪), জৈন্তাপুর উপজেলার মিত্রাকালপূর্ব গ্রামের মৃত চেরাগ আলীর পুত্র জীবান হোসেন বাপ্পী (৩২) ও মোঃ সিদ্দিক (১৮) এবং একই উপজেলার মৌকেনপুর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের পুত্র সাদিক আহম্মদ (১৮)।

বৃধবার দুপুরে র‌্যাব-৯ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মনিরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন র‌্যাব-৯ এর ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর মোঃ জামশেদুর রহমান।

তিনি বলেন, র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সন্ত্রাস দমন, অবৈধ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার, মানব পাচারকারী গ্রেফতার ও ভিকটিম উদ্ধার, চুরি, ডাকাতি, ছিনতাইসহ নানাবিধ অপরাধিদের গ্রেফতার এবং আইনের সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়াও মাদক ব্যবসায়ী ও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও আইনের আওতায় আনার জন্য র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

তিনি বলেন, এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯ এর স্পেশাল কোম্পানী, সিলেট ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মনিরুজ্জামানের নেতৃত্বে এসএমপি এলাকায় গাড়িচুরি চক্রের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে এসএমপি’র বিভিন্ন এলাকা থেকে গাড়িচুরি চক্রের ০৫ জনকে ০১ টি চোরাই পিকআপসহ আটক করতে সক্ষম হয়।

তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃত গাড়িচোরেরা লোকচক্ষুর অন্তরালে দীর্ঘদিন যাবত দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে গাড়ি চুরি করে ক্রয়-বিক্রয় করে আসছিল। তারা মোটরসাইকেল, সিএনজি, অটোরিক্সা, প্রাইভেট কার, পিকআপসহ আরো বিভিন্ন ধরণের যানবাহন চুরি করে বিক্রয় করে। যদি কোনো কারণে এই চোরাইকৃত গাড়িগুলো তারা বিক্রয় করতে না পারে, তাহলে তারা নম্বর প্লেট নকল করে ও রং পরিবর্তন করে রাস্তায় ভাড়া চালায়। আবার কখনো নিজ হেফাজতে রেখে এই গাড়ির যন্ত্রাংশ খুলে খুচরা ও পাইকারী দরে বিভিন্ন অটোমোবাইলস্ ওয়ার্কসপে বিক্রি করে এবং ভাংড়ি হিসেবেও বিক্রি করে বলে আটককৃতরা স্বীকার করে।

 

(আজকের সিলেট/২৩ আগষ্ট/এসসি/ঘ.)

শেয়ার করুন