২৬ আগস্ট ২০১৭


ঈদ সামনে রেখে কামার শিল্পীদের ব্যস্ততা

শেয়ার করুন

সৈয়দ রাসেল আহমদ:: সামনেই ঈদ,তাই ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে দিন-রাত ব্যস্ত সময় পার করছেন সিলেটের বিভিন্নস্থানের কামার শিল্পীরা। গত একমাস ধরেই তারা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত দা, ছুরি, বটি তৈরি ও মেরামতের কাজ করছেন।

সিলেট নগরীর বেশ কিছু কামার দোকানে গিয়ে দেখা যায়,প্রতি দোকানে ৫-৬ জন কর্মকার দা, ছুরি ও বটি তৈরিতে ব্যস্ত। শুধু তাই নয় নগরীর বিভিন্ন পাড়া-মহল্লা থেকে শুরু করে সিলেট মহানগরীর মহাজনপট্টি, চাঁদনীঘাট, কালীঘাট, তোপখানা, কাজিরবাজার সহ বিভিন্ন এলাকায় কামার শিল্পিদের একই দৃশ্য। পুরনো দা,বটি ঝালাই দিতে মজুরি ৪০ থেকে ১২৫ টাকা। গরু জবাইর বড় ছুরি তৈরি করতে খরচ হয়েছে ৭শ’ থেকে ৮শ’ টাকা, চাপাতি পাওয়া যায় ৭শ’ টাকার মধ্যে। নিজেরা লোহা সরবরাহ করলে মজুরি ৪শ’ থেকে ৫শ’ টাকা।

চাঁদনীঘাট প্রতি দোকানে এখন দৈনিক ৫ থেকে ৬ হাজার টাকা বিক্রি হয়। এ মৌসুমে প্রতি দোকান মালিক প্রায় লক্ষ টাকা মতো আয় করবেন। আর কামার শিল্পীরা ৩৫ হাজার থেকে ৬০ হাজার টাকা রোজগার করেন বলে জানা যায়। সারা বছরই কামার শিল্পীদের ব্যস্ততা নিত্যসঙ্গী, তবে কোরাবানির ঈদ এলে সেই ব্যস্ততা দ্বিগুন বেড়ে যায়।

কয়েকজন কামার শিল্পীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, সারা বছর মাংস কাটার দা, বটি, ছুরি, চাপাতি প্রভৃতি বিক্রি করে যে ব্যবসা হয়, তারচেয়ে কয়েকগুণ বেশি ব্যবসা হয় কোরবানির ঈদে। অনেকে জানান, এ কাজ বৃটিশ আমল থেকে করে আসছে।বেশিরভাগ কেত্রেই এটা বাপ-দাদার ব্যবসা হিসেবে বেছে নেন তাদের সন্তানেরা। তবে কয়েকজন জানান,বর্তমানে তাদের অনেক সন্তানদের এ পেশায় আনছেন না।তারা তাদের সন্তানদের অন্যান্য পেশায় দিতে আগ্রহী।

শেয়ার করুন