১০ সেপ্টেম্বর ২০১৭


গোলাপগঞ্জ বিয়ানীবাজার সড়কের বেহাল দশা

শেয়ার করুন

সৈয়দ রাসেল আহমদ:: বিয়ানীবাজার,জকিগঞ্জ,গোলাপগঞ্জ সহ বেশ কয়েকটি বৃহত্তর এলাকার মানুষের যাতায়াতের প্রধান সড়ক বিয়ানিবাজার-জকিগঞ্জ সড়ক।এসব এলাকার মানুষের চলাচলের একমাত্র সড়ক পথে যোগাযোগ ব্যবস্থার বেহাল দশা। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়,গোলাপগঞ্জ থানাধীন রফিপুর, হিলালপুর,পাচমাইল,বাইপাস সহ বেশ কয়েকটি জায়গায় রাস্তার অবস্থা সূচনীয়।প্রতিদিন এ রাস্তা দিয়ে হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করে থাকেন।অথচ গুরুত্বপূর্ণ এ রাস্তাটি বিভিন্ন জায়গায় গর্ত হয়ে বহু জায়গা চলাচলের অনুপযোগী হয়ে গিয়েছে।

রাস্তার এমন সুচনীয় অবস্থায় এলাকার মানুষের মনে তীব্র ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে।অনেকেই আক্ষেপ করে বলেন,শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের মত দেশের একজন জনপ্রিয় মন্ত্রীর এলাকার রাস্তার এই অবস্থা মেনে নেয়া যায় না।হেতিমগঞ্জ বাজারের শাহিন আহমদ নামের এক ব্যবসায়ী বলেন,আমরা কাচা মালের ব্যবসা করি,তাই প্রতিদিন দোকানের জন্য কাচা মাল নিয়ে আসতে হয় সিলেট টাউন থেকে,কিন্তু রাস্তা ভালো না হওয়ায় গাড়ি চালকরা আসতে চায় না,যদিও আসে তাহলে অতিরিক্ত টাকা দিয়ে তাদের নিয়ে আসতে হয়।হিলালপুর গ্রামের সবুজ হোসেন নামের এক যুবক বলেন,রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করতে অনেক কস্ট হয়,প্রতিদিন ঘন্টার পর ঘন্টা হিলালপুর থেকে পাচমাইল এলাকা পর্যন্ত যানযট লেগেই থাকে।ইমারজেন্সি রোগীদের ভোগান্তির শেষ নেই এই জায়গায়।

নাম না বলা শর্তে রাজনৈতিক এক নেতা বলেন, আমরা ভোট দিয়ে মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়কে ক্ষমতায় বসিয়েছি,যদিও তিনি অনেক উন্নয়ন করে যাচ্ছেন,কিন্তু গোলাপগঞ্জ উপজেলায় বিভিন্ন এলাকার রাস্তার বেহাল অবস্থার কারণেই তার সকল উন্নয়ন পণ্ড হয়ে যাচ্ছে,সময় হয়েছে এবিষয় নিয়ে মন্ত্রী মহোদয়ের ভাবা উচিত।

খবর নিয়ে জানা যায়,শুধু গোলাপগঞ্জ নয়, বিয়ানীবাজার উপজেলারও বিভিন্ন এলাকার রাস্তার একই অবস্থা।অনেকেই এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন,বিভিন্ন সময়ে এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট করতেও দেখা গিয়েছে অনেককে।

 

পাচমাইল এলাকার তুরন মিয়া নামের এক ব্যক্তি বলেন,কয়েকদিন থেকে শুনছিলাম মন্ত্রী সিলেটে আসছেন,ভাবলাম মন্ত্রী আসার উসিলায় হয়ত রাস্তাটা মেরামত হবে,কিন্তু মন্ত্রী এলেন,ভাঙ্গা রাস্তা দিয়ে গাড়িতে করে চলেও গেলেন কিন্তু রাস্তা মেরামত আর হল না,এখন অপেক্ষা যদি মন্ত্রী রাস্তাটার অবস্থা দেখে থাকেন তাহলে হয়ত মেরামতের ব্যবস্থা করবেন।

শেয়ার করুন