২ জুলাই ২০১৭


সিলেট মহানগর যুবদলের উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

শেয়ার করুন

আজকের সিলেট ডেস্ক:: সিলেট জেলা যুবদল সভাপতি আব্দুল মান্নান বলেছেন, উন্নয়নের দোহায় দিয়ে আওয়ামী লীগ সরকার বেশিদিন টিকতে পারবে না। গণতন্ত্র ছাড়া উন্নয়ন অবান্তর। উন্নয়নের নামে আওয়ামী লীগ সরকার দেশে লুঠপাঠের রাজত্ব কায়েম করেছে। আওয়ামী লীগের স্বেচ্ছাচারিতা এদেশের জনগণ মেনে নিবে না। সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা না করলে বিএনপি রাজপথের আন্দোলনকে জোড়ালো করবে। তিনি বলেন, গণতন্ত্রকে পাশ কাটিয়ে আ’লীগ আবারো ক্ষমতায় যাওয়ার কলকাঠি নাড়ছে। পছন্দের নির্বাচনী কমিশনার নিয়োগের মাধ্যমে সরকারের ষড়যন্ত্র উন্মোচিত হয়েছে।

তিনি শনিবার সন্ধায় নগরীর একটি হোটেলে সিলেট মহানগর যুবদলের উদ্যোগে আয়োজিত এ ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত মন্তব্য করেন।

সিলেট মহানগর যুবদলের সিনিয়র নেতা সিলেট সদর উপজেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি আব্দুল আজিজের সভাপতিত্বে ও মহানগর যুবদল নেতা সোহেল মাহমুদের পরিচালনায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদ মামুন।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে সিলেট জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদ মামুন বলেন- শেখ হাসিনার অধীনে বিএনপি নির্বাচনে যাবে না। সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন এদেশের জনগণ এবং বিদেশী বন্ধুরাষ্ট্র ও উন্নয়নশীল দেশগুলো আশা করছে। ভোটাধিকার, গণতন্ত্র এবং অধিকার আদায়ে বিএনপি পিছ পা হবে না। তিনি নেতাকর্মীদের প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যে কোন সময় গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা এবং সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবীতে আন্দোলনের ডাক দিবেন। নেতাকর্মীদের ত্যাগের মানসিকতা নিয়ে আগামী দিনের আন্দোলনে রাজপথে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা ও মহানগর যুবদল নেতৃবৃন্দের মধ্যে নিজাম ইউ জায়গীরদার, শামীম মজুমদার, আব্দুল মালেক, হাবিবুর রহমান হাবিব, আব্দুল খালিক, দেলোয়ার হোসেন দিলু মেম্বার, সিরাজুল ইসলাম সিরাজ মেম্বার, অধ্যাপক মঈন উদ্দিন আহমদ, যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা এলিছ খান, শরীফ উদ্দিন মেহেদী, আলমগীর হোসেন, ফরিদ আহমদ, ফরিদ উদ্দিন, মন্তাজ হোসেন মুন্না, সাহেদ আহমদ, শফিক নূর, সালাউদ্দিন, সোহেল আহমদ, আজাদুর রহমান আজাদ, হুসেন আহমদ রুহুল, মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, সুজন মিয়া, কামাল আহমদ, মো. মাসুদ আলী মাছুম, খসরুজ্জামান খসরু, সুয়েবুল হক, মুহিবুর রহমান বাবুল, মো. গিয়াস আহমদ, এড. আব্দুল্লাহ আল হেলাল, মহবত আলী,  এনামুল হক সোহেল, এনামুল ইসলাম লায়েস, আসাদুজ্জামান আসাদ, শাহজাহান আহমদ জুয়েল, এটিএম ফয়েজ, এইচ এম দেলোয়ার, শিপন চন্দ, মো. সুন্দর আলী, মো. মন্নান, আব্দুর রকিব, সৈয়দ গোলাম কিবরিয়া, আব্দুল মুকিত সুমেল,আব্দুর রকিব মুস্তাক, আব্দুস শাহিদ, রাজীব ঘোষ, মঈন উদ্দিন, মো. আজিজুল ইসলাম, মো. আহমদ সাত্তার সুমন, মো. সিদ্দিকুর রহমান রুহেল, মাছুম আহমদ লস্কর, হাবিবুর রহমান , মো. ফয়ছল আহমদ, মো. সাদিক আহমদ, নূর আলম, আশিকুর রহমান আশিক, কবির আহমদ, ইমরান আহমদ, ইঞ্জি. ফরিদ মিয়া, মো. মাহবুবুর রহমান, মুজিবুর রহমান, সাইদুল ইসলাম, কছির উদ্দিন , নুরুল ইসলাম, সুরমান আলী, তুহিন আহমদ রনক, ইউসুফ আলী, মো. মিছবা, নান্টু সরকার প্রমূখ।সভার সমাপ্তি শেষে উপস্থিত সকলের আপ্যায়নে রাতে ডিনারের আয়োজন করা হয়।

এদিকে পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে অসুস্থ যুবদল নেতা আলতাফ হোসেনের রোগ মুক্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করেন সিলেট জেলা যুবদল সভাপতি আব্দুল মান্নান।

শেয়ার করুন