২৮ অক্টোবর ২০১৭


একযুগ পর মৌলভীবাজার আ.লীগের সম্মেলন আজ

শেয়ার করুন

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারে দীর্ঘ ১২ বছর পর শনিবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। এই সম্মেলনকে ঘিরে উজ্জীবিত হয়ে উঠেছেন দলের নেতাকর্মীরা। লবিং-তদবিরে ব্যস্ত সময় পার করছেন পদ প্রত্যাশীরা। নতুন সাজে সাজানো হয়েছে পুরো শহরকে। নেতাকর্মীদের মাঝে সৃষ্টি হয়েছে নবজাগরণ।

সম্মেলনকে কেন্দ্র হিসেবে শহরের সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্মাণাধীন বিশাল সম্মেলন মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। আলোকসজ্জায় সাজানো হয়েছে। প্রধান প্রধান সড়কে ব্যানার-ফেস্টুন, তোরণ আর নানা রঙের গেট নির্মাণ করা হয়েছে।

মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য, জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. ফজলুর রহমান বলেন, দীর্ঘদিন পর এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে, দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদকও আসছেন। সম্মেলন সফল করতে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। সম্মেলনের মাধ্যমে দলের নেতাকর্মীরা আরও উজ্জীবিত হবেন বলে আশাবাদী তিনি।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে দলের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপির। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ, কেন্দ্রীয় সদস্য বদর উদ্দিন কামরান ও অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমানের।

অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত থাকবেন জাতীয় সংসদের হুইপ শাহাব উদ্দিন এমপি, সৈয়দা সায়রা মহসীন এমপি, আব্দুল মতিন এমপি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও সাবেক সংসদ সদস্য আজিজুর রহমান।

এপর্যন্ত সভাপতি পদে সাতজন ও সাধারণ সম্পাদক পদে নয়জনের নাম এসেছে। সম্ভাব্য সভাপতি ও সম্পাদক পদে দলের নেতাকর্মীদের মুখে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন সভাপতি পদে উপাধ্যক্ষ আবদুস শহীদ, নেছার আহমদ, মো. ফিরুজ, অধ্যাপক রফিকুর রহমান, শাহাব উদ্দিন আহমদ, মুহিবুর রহমান তরফদার ও সৈয়দ বজলুল করিম।

সাধারণ সম্পাদক পদে আবদুল মালিক তরফদার সুয়েব, মো. কামাল হোসেন, মো. ফজলুর রহমান, সাইফুর রহমান বাবুল, এম এ রহিম (সিআইপি), মসুদ আহমদ, মিছবাহুর রহমান, আব্দুল মতিন ও সৈয়দ মফস্বিল আলীর নাম শোনা যাচ্ছে।

আসন্ন জেলা সম্মেলন নিয়ে বিগত কয়েকদিন ধরে দেশে-বিদেশে মৌলভীবাজার জেলাবাসীর মধ্যে জল্পনা-কল্পনা চলছে। তৃণমূলের দাবি দলের জন্যে কাজ করবে এমন শক্তিশালী ত্যাগী ব্যক্তিদের বেছে নেয়া হবে।

 

(আজকের সিলেট/২৮ অক্টোবর/ডি/কেআর/ঘ.)

শেয়ার করুন