১০ জানুয়ারি ২০২২


রাজনৈতিক মহলে আলোচনায় ছিল ‘নৌকার ভরাডুবি’

শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে সিলেটে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে। জাল ভোট, সংঘর্ষ, প্রভাব বিস্তার ও বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে সিলেট বিভাগের চারটি জেলায় অনুষ্ঠিত হলো নির্বাচন। তবে অধিকাংশ ইউনিয়নেই ছিলো শান্তিপূর্ণ পরিবেশ। তৃতীয় ধাপের মতো চতুর্থ ধাপেও সিলেট বিভাগে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের প্রার্থীরা ভালো করতে পারেননি। বিভাগের চার জেলার ৮১টি ইউপির মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাত্র ৩২টি ইউপিতে জয় পেয়েছেন। হেরে গেছেন বিপরীতে ৪৯টি ইউপিতে। এর আগে তৃতীয় ধাপে ৭৭টি ইউপির মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জয় পেয়েছিলেন ৩১টিতে।

চতুর্থ ধাপের ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, আওয়ামী লীগের বিজয়ী ৩২ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে হবিগঞ্জে ১১ জন এবং সিলেট, সুনামগঞ্জ ও মৌলভীবাজারে ৭ জন করে মোট ২১ জন রয়েছেন। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের ২৬ জন ‘বিদ্রোহী’ চেয়ারম্যান প্রার্থী জয় পেয়েছেন। এর মধ্যে সুনামগঞ্জে ৯ জন, মৌলভীবাজারে ৮ জন, সিলেটে ৫ জন এবং হবিগঞ্জে ৪ জন আছেন।

ফলাফল বিশ্লেষণ করে আরো দেখা গেছে, চতুর্থ ধাপে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে বিএনপির ১১ জন এবং জামায়াত-সমর্থিত ৪ জন জয় পেয়েছেন। লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে জাতীয় পার্টির ১ জন বিজয়ী হয়েছেন। তবে স্বতন্ত্র হিসেবে অংশ নিয়ে জাপার আরো ১ জন প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। এর বাইরে নির্দলীয় স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ৬ জন জয় পেয়েছেন।

শেয়ার করুন