১১ ডিসেম্বর ২০২২


আপিলে বৈধতা পেয়েও মনোনয়ন প্রত্যাহার স্বামীর, একই পথে স্ত্রীও

শেয়ার করুন

শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় নুরপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মুখলিছ মিয়া ও তার স্ত্রী মাসুমা আক্তার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। শনিবার তারা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০১৭ সালে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিজয়ী হন মুখলিছ মিয়া। তবে এবার তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাননি। ওই ইউনিয়নে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সেবন মিয়া। তাই স্বতন্ত্র হয়ে নির্বাচনের প্রার্থী হয়েছিলেন মুখলিছ ও তার স্ত্রী মাসুমা।

তবে ঋণ খেলাপির দায়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী মুখলিছ মিয়ার মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে বাতিল হয়ে যায়। পরে আপিলে তার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। কিন্তু শনিবার মুখলিছ মিয়া ও তার স্ত্রী মাসুমা আক্তার একইসঙ্গে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন।

এ বিষয়ে মুখলিছ বলেন, ‘দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে আমি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালাম। একইসঙ্গে আমার স্ত্রীও নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছে।’

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, নুরপুর ইউনিয়নে স্বামী-স্ত্রী দুজনেই মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২৯ ডিসেম্বর শায়েস্তাগঞ্জের নুরপুর ও ব্রাহ্মণডোরা ইউনিয়নে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ হবে।

শেয়ার করুন