আজ রবিবার, ২৫শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

ওসমানীনগরে ঝুঁকিপূর্ণ ৩১ পূজামন্ডপ

  • আপডেট টাইম : October 15, 2018 6:05 AM

ওসমানীনগর প্রতিনিধি : সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। তাই সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলায় মন্ডপগুলোতে প্রতিমা তৈরির কাজ শেষ করে সাজসজ্জায় এখন মহাব্যস্ত আয়োজক ও কারিগররা। ওসমানীনগরে এবার ৩৬টি পূজামন্ডপে পূজার প্রস্তুতির কাজ চলছে পুরোদমে। উপজেলার সর্বত্র বইতে শুরু করেছে উৎসবের আমেজ।

এদিকে, ৩৬টি পূজা মন্ডপের মধ্যে ৩১টি পূজামন্ডপই ঝূঁকিপূর্ণ বলে পুলিশ চিহ্নিত করেছে। এর মধ্যে ১৬টি পূজামন্ডপ অধিক ঝূঁকিপূর্ণ, ১৫টি পূজা মন্ডপ ঝূঁকিপূর্ণ এবং মাত্র ৫টি পূজা মন্ডপ সাধারণ রয়েছে। ওসমানীনগরে এবার ১১টি ব্যক্তিগত ও ২৬টি সার্বজনীন পূজা মন্ডপে শারদীয় দূর্গা পূজায় দেবীর আরাধনা করা হবে।

থানা পুলিশ জানিয়েছে দুর্গা পূজায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাসহ সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে পুলিশ। পূজাকে ঘিরে যেকোনা ধরণের নাশকতা ঠেকাতে সর্বোচ্চ সর্তকতায় মধ্যে দিয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে সদা প্রস্তুত রয়েছে পুলিশ।

জানা গেছে, উপজেলায় এবার সার্বজনীন ও ব্যক্তিগত সব মিলিয়ে ৩৬ টি ও মন্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপন হবে। এর মধ্যে সার্বজনীন ২৪টি ও ব্যক্তিগত ১১ টি মন্ডবে পূজা অনুষ্টিত হবে। ১৪ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে ১৯ অক্টোবর দশমীতে প্রতিমা বির্সজনের মধ্য দিয়ে শারদীয় এ উৎসবের সমাপ্তি হবে। উৎসবকে কেন্দ্র করে সাজসাজ রব বিরাজ করছে উপজেলার সনাতনীদের মধ্যে। শান্তিপূর্ণভাবে উৎসব সম্পন্ন করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। পূজায় শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে পূজা উদযাপন কমিটি ও আয়োজকদের উদ্যোগে গঠন করা হচ্ছে মনিটরিং সেল। মনিটরিং সেলের সদস্যরা প্রশাসনের সাথে আইন-শৃংখলা রক্ষার্থে সার্বক্ষণিক কাজ করবেন।

এদিকে, প্রশাসনের তালিকা অনুসারে ওসমানীগরের অধিক ঝুঁকিপূর্ণ গুলো হলো, উমরপুর ইউপির মাটহানি শ্রী শ্রী কালী মন্দির সার্বজনীন পূজা মন্ডপ, উমরপুর সার্বজনীনন পূজা মন্ডপ, সাদিপুরের মোবারকপুর মহামায়া সার্বজনীন পূজা মন্ডপ, গভুরটিকি গীতা সংঘ সার্বজনীন পূজা মন্ডপ, নিজ বুরুঙ্গা সার্বজনীন পূজা মন্ডপ, কামারগাঁও সার্বজনীন পূজা মন্ডপ, গোয়ালাবাজার সনাতন সংঘ সার্বজনীনন পূজা মন্ডপ, দাশপাড়া সিদ্ধেশ্বরী সেবা সংঘ সার্বজনীনন পূজা মন্ডপ, গ্রামতলা বীনা পানি তরুন সংঘ সার্বজনীন পূজা মন্ডপ, তেরহাতি সার্বজনীন পূজা মন্ডপ, ভুদরপুর মানিক লাল দে পূজা মন্ডপ, তাজপুর রবিদাস লালকৈলাশ সার্বজনীনন পূজা মন্ডপ, হরিনগর চয়ন পালের পূজা মন্ডপ, দয়ামীর খয়েরপুর ছাত্র যুবঐক্য সার্বজনীন পূজা মন্ডপ, উছমানপুর রঘুপুর সার্বজনীন পূজা মন্ডপ, ও মুমিনপুর সার্বজনীনন পূজা মন্ডপ। ঝুঁকিপুর্ণ পূজা মন্ডপ গুলো হলো, সাদিপুর গাভুরটিকি সার্বজনীন, সাদিপুর মঃস্যজীবি সমবায় সমিতি সার্বজনীন, লামা গাভুরটিকি সার্বজনীন, অনুলাল দে(ব্যক্তিগত), পশ্চিম পৈলনপুর কিয়ামপুর বিকাশ দেব(ব্যক্তিগত), খারুকোনা শ্রীধাম সূত্রধর (ব্যক্তিগত), বুরুঙ্গা সঞ্জিত পাল(ব্যক্তিগত), গোয়ালাবাজার ব্রাহ্মণ গ্রাম শ্রী ানুপ কুমার দেব(ব্যক্তিগত), তাজপুর খাশিপাড়া শিব মন্দির সার্বজনীন, নশিওরপুর নান্টু দেব(ব্যক্তিগত), তাজপুর রবিদাস উৎপল দেব বাবুল মহাজনবাড়ী(ব্যক্তিগত), দয়ামীর শ্রী চৈতন্য সংঘ সার্বজনীন, নিজ কুরুয়া পূর্বপাড়া সার্বজনীন, খাইয়াখাইড় জয় দুর্গা সার্বজনীন ও নিজ কুরুয়া দক্ষিণপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্ডপ।

উপজেলার কয়েকটি পূজা মন্ডপ ঘুরে দেখা গেছে, শেষ শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে পূজামন্ডপে এখন চলছে প্রতিমা শিল্পীর হাতে তুলির আঁচড়। শারদীয় উৎসবকে সামনে রেখে প্রতিমা তৈরি সময় পার করছেন প্রতিমা শিল্পীরা। রং-তুলির আঁচড়ে মনের মাধুরী দিয়ে গড়ে তুলছেন দেবী দুর্গাকে। এবং সাজসজ্জার কাজও সমাপ্তের পথে।

আয়োজকরা জানালেন, প্রতিমা তৈরীর কারিগর সংকট এবং প্রতিমা তৈরীতে খরচ বৃদ্ধি পাওয়ায় বিগত বছরের তুলনায় এবার পূজার ব্যয় অনেকেটাই বেড়েছে। এরমধ্যে প্রতিমা ভাস্কররাও তাদের মজুরি বাড়িয়ে দিয়েছেন। এরপর উৎসব মুখর পরিবেশে এ আয়োজন সম্পন্ন হচ্ছে।

ওসমানীনগর থানার নবাগত ওসি এস এম আল মামুন বলেন, আসন্ন শারদীয় দুর্গা পূজায় আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহর করা হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ পূজা মন্ডপ গুলোতে অধিকতর সর্তক ব্যবস্থা ও নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ