আজ রবিবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

ঐক্যফ্রন্টকে ‘অস্বীকার’ করলেন মোকাব্বির

  • আপডেট টাইম : March 3, 2019 10:48 AM

অতিথি প্রতিবেদক : সিলেট-২ আসন থেকে নিখোাঁজ বিএনপি নেতা এম. ইলিয়াস আলীর পরিবার ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে সমর্থন নিয়ে নির্বাচিত সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান বলেছেন, আমি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে নির্বাচন করিনি। আমি গণফোরাম থেকে নির্বাচন করেছি। আমি উদীয়মান সূর্য প্রতীকে নির্বাচিত। তাই আমার শপথ নেয়ার বিষয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কোনো ভূমিকা আছে বলে আমি মনে করি না।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আপত্তি সত্ত্বেও নিজের শপথ নেওয়ার সিদ্ধান্তের প্রসঙ্গে এমনটি বলেন মোকাব্বির।

নানা জল্পনা কল্পনার পর আগামী ৭ মার্চ সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিতে শনিবার স্পিকারকে চিঠি পাঠিয়েছেন মোকাব্বির। একইদিনে চিঠি পাঠান মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচিত সাংসদ সুলতান মোহাম্মদ মনসুর। এই চিঠি ফলে এই দুই সাংসদের শপথ নেওয়া না নেওয়া নিয়ে জল্পনা-কল্পনার অবসান হলো।

শপথের জন্য ঐতিহাসিক ৭ মার্চ কেন, এমন প্রশ্নের জবাবে মোকাব্বির খান বলেন, ‘দিনটি আমাদের জন্য, দেশের জন্য ঐতিহাসিক দিন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতির মুক্তির জন্য, ঐক্যর জন্য, স্বাধীনতার জন্য এদিনে ঐতিহাসিক ভাষণ দিয়েছিলেন। সে কারণে আমার কাছে দিনটি একটি বিশেষ দিন। আমি ব্যক্তিগতভাবে এজন্যই দিনটি বেছে নিয়েছি’।

শপথ নিয়ে দলের অবস্থান প্রসঙ্গে মোকাব্বির খান বলেন, আমার শপথ নেয়ার বিষয়ে আমার দল গণফোরাম শুরু থেকেই ইতিবাচক। এ বিষয়ে দলীয় ফোরামে আলোচনা হয়েছে। মাত্র দু’একজন ছাড়া কেউ বিরোধিতা করেনি, করছে না।

দলের সিনিয়র কয়েক নেতার বিরোধিতার পরও শপথ নেয়া হলে দলে কোনো বিভক্তি আসবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মোকাব্বির খান বলেন, আমি মনে করি না। দু’একজন কেন বিরোধিতা করছেন সেটা তাদেরই জিজ্ঞাসা করুন। আমি তো বিরোধিতার কোনো কারণ দেখি না। তাই এ নিয়ে বিভক্তিরও সম্ভাবনা আছে বলে মনে করি না।

ড. কামাল হোসেনের কোনো সম্মতি আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, তিনি শুরু থেকেই ইতিবাচক। এখন তিনি বিরোধিতা করছেন কিনা তা তাকেই জিজ্ঞাসা করুন।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে গণফোরামের ‘উদীয়মান সূর্য’ প্রতীকে নির্বাচিত হন সিলেট-২ আসন থেকে নির্বাচিত হন মোকাব্বির খান। ঐক্যফ্রন্টের শরীক দলগুলো থেকে ৭ জন প্রার্থী এ নির্বাচনে সাংসদ নির্বাচিত হন। শুরু থেকেই নিজেদের নির্বাচিত সংসদরা শপথ নেবেন না বলে জানিয়েছেন ঐক্যফ্যন্ট নেতারা।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ