আজ মঙ্গলবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

প্রার্থীর অভিযোগে ওসি’র বদলি

  • আপডেট টাইম : March 17, 2019 6:10 AM

উপজেলা প্রতিনিধি, কুলাউড়া

মৌলভীবাজার : পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আ.স.ম. কামরুল ইসলামের অভিযোগের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশনের আদেশে কুলাউড়া থানার ওসি শামীম মূসাকে বদলি করা হয়েছে।

শনিবার তাকে এই বদলির আদেশ দেয়া হয়।

মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহ জালাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, ওসি শামীমকে বদলি করে পুলিশের ক্রিমিনাল ইনভেসটিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি)’র প্রধান কার্যালয়ে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তার পরিবর্তে কুলাউড়া থানায় ওসির দায়িত্ব হস্তান্তর করেছেন থানার তদন্ত ওসি সঞ্চয় চক্রবর্তীর কাছে।

ওসি মূসার সাথে স্থানীয় আ’লীগের প্রার্থী এবং আ’লীগ নেতা-কর্মীদের সঙ্গে মনস্তাত্ত্বিক দ্বন্দ্ব চলছিল বলে সূত্র নিশ্চিত করেছে। গত ৭ মার্চ প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন কুলাউড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আ’লীগের মনোনীত প্রার্থী কামরুল ইসলাম। বেশ কয়েকজন ভাইস চেয়ারম্যানও লিখিত অভিযোগ করেন ওসি মূসার বদলি চেয়ে।

আ’লীগের প্রার্থী অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করেন- আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সফি আহমদ সলমানের পক্ষে বিভিন্ন ইউনিয়নে গিয়ে ক্যাম্পেইন করেন ওসি মুসা। এমনকি নৌকায় ভোট না দিয়ে সফি আহমদ সলমানকে ভোট দিতে সাধারণ মানুষদের ভয়ভীতি প্রদর্র্শন করেছেন। এজন্য নির্বাচন সুষ্টু করতে নির্বাচন কমিশনারের কাছে ওসির অন্যত্র বদলী চাওয়া হয়েছে অভিযোগপত্রে।

তবে পুলিশের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, মূলত আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী আ.স.ম. কামরুলের পক্ষে নির্বাচনে কাজ না করায় তাকে অন্যায়ভাবে বদলি করা হয়েছে।

২০১৭ সালের জুলাই মাসের ৭ তারিখে কুলাউড়া থানায় যোগদান করেন ওসি মূসা। এর আগে হবিগঞ্জ জেলার লাখাই থানায় দায়িত্ব পালন শেষে কুলাউড়ায় যোগদান করেন। ওসি মূসা ১৯৯১ সালে এসআই হিসেবে পুলিশে যোগদান করেন। ২০০৫ সালে ওসি পদে পদোন্নতি পেয়ে বিভিন্ন থানায় দায়িত্ব পালন করেন।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ