আজ শনিবার, ১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

মামলা করবেনা ওয়াসিমের পরিবার, ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ গ্রহন

  • আপডেট টাইম : March 24, 2019 12:08 PM

নিজস্ব প্রতিবেদক

সিলেট : ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শেরপুরে বাসচাপায় নিহত সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (সিকৃবি)-এর শিক্ষার্থীর লাশ পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই হস্তান্তর করেছে পুলিশ।

শনিবার রাতে পরিবারের অনুরোধে ময়নাতদন্ত ছাড়াই ওয়াসিম আফনানের লাশ হস্তান্তর করা হয়। এর আগে শনিবার সন্ধ্যায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শেরপুরে বাসা চাপায় নিহত হন সিকৃবি শিক্ষার্থী ওয়াসিম আফনান। নিহতের পরিবার ও সহপাঠীদের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে চাপা দিয়ে ওয়াসিমকে হত্যা করা হয়।

এদিকে, ঘটনার পর শনিবার রাতে ওসমানী হাসপাতাল ও বাস টার্মিনাল এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা। অভিযুক্ত বাস ও চালককে আটক করে পুলিশ। আর শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের মধ্যেই ময়নাতদন্ত ছাড়া ছেলের মরদেহ নিয়ে যাওয়ার আবেদন করেন ওয়াসিমের বাবা মো. আবু জাহেদ মাহবুব।

কোতোয়ালী থানার ওসি সেলিম মিয়া জানান, ময়নাতদন্ত ছাড়াই ছেলের লাশ নিয়ে যেতে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বরাবর আবেদন করেন ওয়াসিমের বাবা। ম্যাজিস্ট্রেটের অনুমতি সাপেক্ষে রাতেই লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এরপর তারা লাশ গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যান। পরিবারের পক্ষ থেকে এ ঘটনায় কোনো মামলা দায়ের করা হবে না বলেও জানিয়েছেন নিহতের বাবা।

সেসময় হাসপাতালে উপস্থিত একাধিক ব্যক্তি জানান, পুলিশ ও শিক্ষার্থীরা ময়নাতদন্ত ও মামলা করার ব্যাপারে পরিবারের সদস্যদের অনুরোধ করলেও পরিবার তাতে রাজী হয়নি। এসময় সিকৃবি শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে ওয়াসিমের জানাযা পড়ার আগ্রহ প্রকাশ করলে তাতেও রাজী হননি নিহতের বাবা।

নিহত ওয়াসিম আফনান হবিগঞ্জে নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের রুদ্র গ্রামের মো. আবু জাহেদ মাহবুব ও ডা. মীনা পারভিন দম্পত্তির একমাত্র ছেলে। সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের ৪র্থ বর্ষের ছাত্র।

তবে মৌলভীবাজার সদর থানার ওসি সোহেল আহাম্মদ বলেন, এটি একটি হত্যাকান্ড। চালকের সহযোগি বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে ফেলে দিয়েছে। তাই মামলার করার জন্য আমরা পরিবারের সদস্যদের সাথে যোগােযো করবো। তারা যদি মামলা করতে রাজী না হয় তবে পুলিশ বাদী হয়েই মামলা করবে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ