আজ রবিবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

হবিগঞ্জে রোগীর গাড়িতে ডাকাতি, আহত ৫

  • আপডেট টাইম : May 10, 2019 10:03 AM

জেলা প্রতিনিধি

হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার বিথঙ্গল থেকে রোগী নিয়ে জেলা সদর হাসপাতালে আসার পথে আজমিরীগঞ্জ উপজেলার কচুয়ার হাওরে নারীসহ ৫ জনকে কুপিয়ে নগদ টাকা ও মোবাইল ফোনসহ মালামাল নিয়ে গেছে ডাকাতেরা। এ সময় ভাঙচুর করা হয় রোগী বহনকারী টমটমটিও।

বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে এই ডাকাতির ঘটনা ঘটে। আহতদের মাঝে দুইজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং বাকি তিনজনকে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা জানান, বৃহস্পতিবার রাতে বিথঙ্গল গ্রামের ডায়রিয়া আক্রান্ত ইন্দ্রজিত দাস নামের এক বৃদ্ধকে নিয়ে টমটম যোগে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে আসছিলেন তার স্বজনেরা। পথিমধ্যে কচুয়ার হাওর নামক স্থানে একদল ডাকাত তাদের টমটমের গথিরোধ করে।

এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি আঘাত করে সঙ্গে থাকা নগদ ১০ হাজার টাকা ও ৩টি মোবাইল ফোন নিয়ে চলে যায় ডাকাত দল। পরে রাস্তা দিয়ে একটি সিএনজি অটোরিকশা যাওয়ার সময় আহত অবস্থায় দেখতে পেলে তাদের হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে।

সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক আশঙ্কাজনক অবস্থায় বানিযাচং উপজেলার পইলারকান্দি ইউনিনের বিথঙ্গল ইন্দ্রজিৎ দাসের ছেলে অজিত দাস (৩৫) ও সিরাজ মিয়াকে (৩০) সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। এছাড়া একই গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে ফিরোজ মিয়া (২৭), লক্ষ্মী কান্ত (৪৮) ও শামীম মিয়াকে (৪০) হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, আহতদের মাঝে দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাই তাদের সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকিরা এখানেই চিকিৎসাধীন।

বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) শৈলেন চাকমা বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ