আজ মঙ্গলবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

সিলেটে ভয়াবহ হয়ে উঠছে মানবপাচার

  • আপডেট টাইম : আগস্ট ১৭, ২০১৯ ৯:৪৪ পূর্বাহ্ণ

এ . এস রায়হান

সিলেট : প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেট। বেকারত্ব, রাজনৈতিক অস্থিরতা আর শ্রমের কমমূল্যসহ নানা কারণে সিলেটের তরুণ-যুবকদের সিংহভাগ বরাবরই বিদেশে যেতে আগ্রহী। তবে তাদের এই বিদেশ মুখীতাকে কাজে লাগিয়ে সিলেটে বরাবরই সক্রিয় মানবপাচারকারী চক্র।

মূলত অবৈধপথে ইউরোপ পাঠালেও বর্তমানে মধ্যপ্রাচ্যেও মানব পাচার করছে তারা। তরুণ- যুবকদের পাশাপাশি নারীরাও জীবিকার তাগিদে পাড়ি দিচ্ছেন স্বপ্নের দেশে।

সর্বশেষ গত মে মাসে লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবিতে হতাহতের ঘটনায় ফের আলোচনায় উঠে আসে মানবপাচারের বিষয়টি। তবে শুরুতে মানবপাচারকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান চললেও বর্তমানে আবারও তাদের বিরুদ্ধে দৃশ্যত কোনো পদক্ষেপ নেই প্রশাসনের। আর এই সুযোগে আবারও সিলেটের সক্রিয় হয়ে উঠেছে অবৈধ ট্রাভেলস্ ব্যবসায়ীরা।

জেলা প্রশাসনের একটি সূত্র জানিয়েছে, তাদের অভিযান অব্যাহত আছে। এ ব্যাপারে অপরাধীদের ছাড় দেওয়া হবে না।

সচেতন মহলের নাগরিকরা বলছেন, একটা ঘটনা ঘটার পর শুরু হয় আলোচনা আর সমালোচনা। বিস্তৃতিতে তলিয়ে গেলে সেটি অজানায় হারিয়ে যায়। সচেতনতার দ্বারাই অপরাধীদের রুখতে হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সংক্ষুব্ধ নাগরিক সিলেটের সমন্বয়ক আব্দুল করিম কিম ক্ষুব্ধ কন্ঠে বলেন, ‘ঘটনা ঘটার পর এই ইস্যুতে চলে প্রশাসনের অভিযান। চলে বিরামহীন লেখালেখি আর দেয়া হয় সুরাহার আশ্বাস। বর্তমানে এটি আমাদের সংস্কৃতি হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে এর কোনো সুরাহা হবে কিনা তা কারো জানা নেই।’

তিনি বলেন, যদি আবারও এমনটি ঘটে তবে ফের অভিযান হবে। ইচ্ছে থাকলে নিয়মিত নজরদারি রাখতে হবে। ঘটনা ঘটার পর অভিযান পরিচালনা করে আবেগকে ঢেকে দেয়া থেকে আমাদের বিরত থাকতে হবে। এর একটি সুরাহা প্রয়োজন।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আবুল কালাম বলেন, ‘মানবপাচারকারীদের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে। এ ব্যাপারে আমরা কাউকে ছাড় দিতে রাজি নই।’

প্রসঙ্গত, গেল মে মাসের ১০ তারিখ তিউনিসিয়ার উপকূলের কাছে ভূমধ্যসাগরে অভিবাসন-প্রত্যাশীদের একটি নৌকাডুবির ঘটনায় ৬৫ জন মারা যান। এই ঘটনায় সিলেট অঞ্চলের অন্তত ২০ জনের সলিল সমাধি হয়। এর পর প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিয়মিতই চালানো হয় অভিযান। এতে করে মানব পাচারের সাথে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ ভাবে জড়িতরা ঐ পরিস্থিতিতে খানিক সময়ের জন্য গাঁ ঢাকা দেয়।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ