আজ রবিবার, ৩০শে মে, ২০২০ ইং

ফেঞ্চুগঞ্জে ইটের রাবিশ দিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাদ ঢালাই

  • আপডেট টাইম : September 5, 2019 5:29 AM

উপজেলা প্রতিনিধি

ফেঞ্চুগঞ্জ : ইটের রাবিশ দিয়ে চলছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাদ ঢালাই কাজ। জনতার প্রতিরোধে কাজ বন্ধ করতে বাধ্য হন সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও ঠিকাদার। এ ঘটনার খবর পেয়ে ঢালাই ভেঙ্গে ও নির্মান সামগ্রী পরিবর্তন করে পুণরায় ছাদ ঢালাই কাজ করার নির্দেশ দিলেন ইউএনও। গত সোমবার এ ঘটনাটি ঘটেছে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ফরিজা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে।

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের আওতাধীন ১ কোটি ১৮ লাখ ৪২ হাজার ২৩৪ টাকা ব্যায়ে ফরিজা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলায় এক্সটেনশন কাজ শুরু করেন তালিকাভূক্ত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সিলেটের মেসার্স হক কন্ট্রাকশন।

স্থানীয়রা জানান, কাজের শুরু থেকে অনিয়ম আর দুর্নীতিতে কাজ পরিচালিত হলেও স্থানীয়দের কথায় পাত্তা দেয়নি ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠতে পারে এই ভয়ে এতদিন জোরালো পদক্ষেপ নেননি স্থানীয়রা। আজ চলছে তৃতীয় তলার ছাদ ঢালাই কাজ।

ইটের খোয়ার বদলে রাবিশ ও সিমেন্টের পরিমান কম দিয়ে ছাদ ঢালাই করতে দেখে বেলা ১ টায় স্থানীয় যুবকরা ক্ষিপ্ত হলে কাজ বন্ধ করতে বাধ্য হন সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও ঠিকাদার। সরেজমিন গিয়ে দেখা যায় ক্ষিপ্ত যুবকদের তীব্র প্রতিবাদ। এ সময় খবর পেয়ে বিকেল ৩ টায় ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ জসীম উদ্দিন।

এ ব্যাপারে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ জসীম উদ্দিন বলেন, সরেজমিন অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় সংশ্লিষ্ট উপসহকারী প্রকৌশলী মাহমুদুল হাসানকে কাজ বন্ধের নির্দেশ দিয়ে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। ঢালাই যা হয়েছে তা উপড়ে ফেলে ও খোয়া পরিবর্তন করে সিডিউল মোতাবেক কাজ করতে হবে। এ ব্যাপারে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানিয়েছেন ইউএনও।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ