আজ সোমবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

ওসমানীনগরে কমিটি ছাড়াই হলো মহিলা আ.লীগের সম্মেলন

  • আপডেট টাইম : নভেম্বর ৫, ২০১৯ ৬:৪৮ অপরাহ্ণ

জুবের খান, ওসমানীনগর থেকে : কমিটি ঘোষণা ছাড়াই ওসমানীনগর মহিলা আ’লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন শেষ হয়েছে। কমিটিতে রিতা চক্রবর্ত্তী নামের এক শিক্ষিকার নাম দেয়া হয়নি এমন অভিযোগ এনে কথা কাটাকাটি হলেও কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই সম্মেলন শেষ হয়।

জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার তাজপুর কদমতলায় একটি পার্টি সেন্টারে সিলেট জেলা মহিলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল্হাজ্ব সালমা বাছিত এর সভাপতিত্বে ও ও উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান চৌধুরী নাজলুর সঞ্চালনায় উপজেলা মহিলা আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্টিত হয়।

সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা মহিলা আ.লীগের প্রতিষ্টাতা সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়দা জেবুন্নেছা হক।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- জেলা আ’লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক সৈয়দ এপতার হোসেন পিয়ার। প্রধান বক্তা ছিলেন- উপজেলা আ’লীগের সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমান।

সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন- জেলা আ’লীগের মহিলা সম্পাদক নাজনিন হোসেন, আ.লীগ নেত্রি এ জেড রওশন জেবিন রুবা, নিলুফা ইসলামসহ স্থানীয় আ’লীগ নেত্রিবৃন্দ। সম্মেলন চলাকালিন এক পর্যায়ে স্থানীয় উপজেলা আ’লীগ নেতা চয়ন পাল আ’লীগ নেত্রি রিতা চক্রবর্ত্তীর জেলা কমিটির কাছে দেয়া হয়নি এমন অভিযোগ এনে অনুষ্টান সঞ্চালক উপজেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদককে জিজ্ঞাস করতে এগিয়ে যান। এসময় উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে নেত্রিবৃন্দ এগিয়ে এসে দুইজনকে আলাদা করে নিয়ে গেলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। এরপর একটানা সন্ধ্যা পর্যন্ত কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই অনুষ্টান চলে।

উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান চৌধুরী নাজলু বলেন, রিতা চক্রবত্তী পেশায় একজন শিক্ষক। তিনি পদে আসলে চাকুরীর সমস্যা হবে তাই স্বেচ্ছায় পদে আসতে চাননি। এ নিয়ে একটু কথা কাটা কাটি হয়েছে। তবে কোন সমস্যা হয়নি। কমিটি ঘোষণা করা হয়নি। জেলা নেতৃবৃন্দ পরবর্তিতে সাক্ষাতকার নিয়ে কমিটি ঘোষণা করবেন।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ