আজ মঙ্গলবার, ২০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

নিউইয়র্কে ‘এমটিএ’ পরিচালককে বাঁচালেন বাংলাদেশী পুলিশ অফিসার আজহারুল

  • আপডেট টাইম : September 6, 2020 3:22 PM

প্রবাস ডেস্ক : আজহারুল চৌধুরী । বাংলাদেশি বংশদূত আমেরিকান প্রবাসী তিনি। নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগ-এনওয়াইপিডির অফিসার। তার সাহসিকতায় প্রাণে বেঁচেছেন ৬৫ বছর বয়সী এমটিএ পরিচালক ডেনিস রুশো । আমেরিকান মিডিয়া তার প্রশংসায় বলেছে, সাহসী বীর, হিরো। আজহারুল বাংলাদেশে জয় বাংলা ফাউন্ডেশনের সহ সভাপতির দায়িত্বও পালন করছেন।

গত বৃহস্পতিবার সকালে নিউইয়র্ক নগরীর ব্রুকলিনের ডাউনটাউন সাবওয়ে স্টেশনে কাজ করছিলেন এমটিএ পরিচালক ডেনিশ রুশো। তিনি ওই সময় এক দুর্বৃত্তের হামলার শিকার হন।কৃষ্ণাঙ্গ ওই ব্যক্তি ৬৫ বছর বয়সী রুশোকে হঠাৎ পেছন থেকে এসে ধাক্কা দিয়ে ট্রেনের লাইনে ফেলে দেয়। রুশো উড়ে গিয়ে ট্রেন লাইনে গিয়ে পড়েন।

একদিকে উত্তর দিকগামী ‘এ’ ট্রেন দ্রুতগতিতে আসছে। অন্যদিকে মৃত্যুকে খুব কাছ থেকে দেখছেন রুশো।ট্রেন লাইনে পড়ে যাওয়ার পর রুশো এতটাই আহত হয়েছেন যে দাঁড়াতে পারছিলেন না। মাত্র ৪২ সেকেন্ডের মধ্যে ওই সাবওয়ে ট্রেন স্টেশনে কর্মরত নিউইয়র্ক পুলিশের (এনওয়াইপিডি) দুই অফিসারের সাহসিকতায় প্রাণে বেঁচে যান ডেনিশ রুশো।পরবর্তীতে তাকে ব্রুকলিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বৃহস্পতিবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে গণমাধ্যমকে নতুন করে কীভাবে জীবন ফিরে পেলেন এসব কথা বলেন তিনি।তবে তার পাঁজর ও মেরুদণ্ড ভেঙে গেছে।

বাংলাদেশি-আমেরিকান পুলিশ অফিসার আজহারুল চৌধুরী ‘এ’ ট্রেন আসার ঠিক ৪২ সেকেন্ড আগে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রুশোকে উদ্ধার করেন। আরেক পুলিশ অফিসার আলেক্সজান্ডার মিরোসিনক ট্রেনটি থামিয়ে দেন।তাদের এই দুঃসাহসকিতা কাজের প্ৰশংসা করছে আমেরিকান মিডিয়া ও নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্ট।

এদিকে, নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্ট ওই হামলাকারীকে সিসি টিভির ফুটেজ দেখে গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রেখেছে এমনটি জানালেন জয় বাংলা ফাউন্ডেশন এর সহ সভাপতি ও পুলিশ অফিসার আজহারুল চৌধুরী। তার এই সাহসীকতায় বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছে। আমরা জয় বাংলা ফাউন্ডেশন এর সকলে তথা দেশের মানুষ গর্বিত।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ