আজ মঙ্গলবার, ২৭শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

সেই চ্যাটিং গ্রুপের অ্যাডমিন দীপিকা

  • আপডেট টাইম : September 26, 2020 11:08 AM

বিনোদন ডেস্ক : বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু তদন্তে নেমে বলিউডে মাদকের ইঙ্গিত পেয়েছিল ভারতের গোয়েন্দা এবং নিরাপত্তা সংস্থা সিবিআই। এরপর আলাদা করে মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করে এনসিবি।

মাদক নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপের চ্যাটিং গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। ভারতের নারকেটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) এই তথ্য জানিয়েছে।

সম্প্রতি মাদক নিয়ে ইন্টারনেটে একটি আলাপচারিতা ফাঁস হয়েছে। এতে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটিং গ্রুপে ডি ও কে নামের দুই ব্যক্তির মধ্যে মাদক নিয়ে একাধিক কথা চালাচালি হতে দেখা যায়। পরবর্তীতে জানা যায়, ডি নামের ব্যক্তি দীপিকা। অন্যদিকে কে নামের ব্যক্তিটি দীপিকার ম্যানেজার কারিশমা প্রকাশ।

এই ঘটনায় অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনকে তলব করেছে এনসিবি। শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) এই অভিনেত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এর আগে মাদক চ্যাটিং গ্রুপে এই অভিনেত্রীর অ্যাডমিন হওয়ার চাঞ্চল্যকর তথ্যটি বলিপাড়ায় হইচই ফেলে দিয়েছে।

দীপিকা ছাড়াও অভিনেত্রী রাকুল প্রীত সিং, সারা আলী খান, শ্রদ্ধা কাপুরকে তলব করেছে এনসিবি। শুক্রবার রাকুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এছাড়া কারিশমা প্রকাশ, সুশান্তের ম্যানেজার জয়া সাহাকেও তলব করা হয়েছিল।

অভিনেতা সুশান্ত ‍সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর তার মাদক সেবনের বিষয়টি প্রকাশ পায়। এরপর এটি নিয়ে তদন্ত শুরু করে এনসিবি। পরবর্তী সময়ে এই অভিনেতার প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জানা যায়, এনসিবি কর্তৃপক্ষের কাছে মাদক সেবন করেন এমন বলিউড তারকাদের নাম প্রকাশ করেছেন রিয়া। সেই তালিকা ধরে এখন তদন্ত করছে এনসিবি।

ইতোমধ্যে, গত ৮ সেপ্টেম্বর মাদক মামলায় রিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। বর্তমানে এই অভিনেত্রীকে জেল হেফাজতে রাখা হয়েছে। মুম্বাইয়ের বাইকুল্লা কারাগারে আছেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ