আজ বুধবার, ২৮শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

গণধর্ষণে অভিযুক্ত সাইফুরসহ চার আসামির ছাত্রত্ব বাতিল

  • আপডেট টাইম : October 13, 2020 1:11 PM

ডেস্ক রিপোর্ট : সিলেট মুরারী চাঁদ (এমসি) কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সাইফুর রহমানসহ চারজনের ছাত্রত্ব ও সনদ বাতিল করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। সেই সঙ্গে এমসি কলেজ থেকে তাদের স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এমসি কলেজের অধ্যক্ষ মো. সালেহ আহমদ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সোমবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মাহফুজ ব্যতীত অন্যরা এমসি কলেজের সাবেক ছাত্র ছিলেন। সিন্ডিকেট সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, ধর্ষণ মামলার আসামি হওয়ায় এমসি কলেজের অধ্যক্ষের লিখিত আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ওই চারজনের ছাত্রত্ব এবং সার্টিফিকেট বাতিল করা হয়। তারা চারজনই এমসি কলেজের ছাত্র ছিলেন।

ছাত্রত্ব বাতিল হওয়া চার শিক্ষার্থী হলেন- বিএসএস ডিগ্রি পাস কোর্সের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের (অনিয়মিত) ছাত্র সাইফুর রহমান (২৮) তার রেজিস্ট্রেশন নম্বর ২৯৪৯৪১৩। ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ইংরেজি মাস্টার্স ফাইনাল বর্ষের শাহ মাহবুবুর রহমান ওরফে রনি (২৫), রেজিস্ট্রেশন নম্বর ১৬৩১১০২৩১৪২। বিএসএস ডিগ্রি পাস কোর্সের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের রবিউল ইসলাম (২৫), রেজিস্ট্রেশন নম্বর ১৩১০২০৫১২৪৮ এবং ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ইংরেজি বিভাগের মাস্টার্স ফাইনাল বর্ষের মাহফুজুর রহমান (২৫), রেজিস্ট্রেশন নম্বর ১৭৩১১০২৪৪৮৪।

গত ২৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে রেখে এক তরুণীকে গণধর্ষণ করেন ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। অভিযুক্তরা সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক রণজিৎ সরকারের অনুসারী বলে জানায় দলীয় সূত্র। পরে রাত সাড়ে ১০টায় ওই তরুণীকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ওসিসিতে ভর্তি করে পুলিশ।

গণধর্ষণের ঘটনায় পরদিন এসএমপির শাহপরাণ থানায় ছয়জনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও তিনজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন তরুণীর স্বামী। ২৭ সেপ্টেম্বর ভিকটিমের জবানবন্দি রেকর্ড করেন সিলেট মহানগর হাকিম তৃতীয় আদালতের হাকিম শারমিন খানম নিলা। এ ঘটনায় আট আসামিকে গ্রেফতার করে তাদের পাঁচদিন করে রিমান্ড শেষে প্রত্যেকে আদালতে জবানবন্দি দেয়। বর্তমানে আসামিদের সবাই কারাগারে রয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ