১ সেপ্টেম্বর ২০২১


সিলেটে করোনায় আরও ৮ জনের মৃত্যু

শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সিলেট বিভাগে আরও ৮ জন মারা গেছেন। এই সময়ে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে আরও ৮৯ জনের।

বুধবার সকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় সাক্ষরিত করোনা বিষয়ক দৈনন্দিন তথ্য বিবরণী থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। এর আগে আগের ২৪ ঘন্টায় সিলেট বিভাগে করোনায় ৮ জনের মৃত্যু ও ৮০ জনের শনাক্ত হয়েছিলো।

তথ্য বিবরণী থেকে যায়, সিলেট বিভাগে গত ২৪ ঘন্টায় ৮৭২ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। মোট পরীক্ষার ১০ দশমিক ২১ শতাংশের করোনা শনাক্ত হয়। এর মধ্যে সিলেট জেলায় শনাক্তের হার ৯ দশমিক ৪৪ শতাংশ, সুনামগঞ্জে ৬ দশমিক ৭৬ শতাংশ, হবিগঞ্জে ১০ দশমিক ৫৩ শতাংশ এবং মৌলভীবাজারে ১৭ দশমিক ৮২ শতাংশ।

নতুন শনাক্ত হওয়া ৮৯ জনের মধ্যে ৬৪ জনই সিলেট জেলার বাসিন্দা। বাকিদের মধ্যে সুনামগঞ্জের ৫ জন, হবিগঞ্জের ২ জন এবং মৌলভীবাজার জেলার ১৮ জন।

এ নিয়ে বিভাগে করোনাভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা ৫২ হাজার ৯৮৩ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে সিলেট জেলায় সর্বোচ্চ ৩২ হাজার ৬৭৩ জন, সুনামগঞ্জে ৬ হাজার ৯০ জন, হবিগঞ্জে ৬ হাজার ৪৫৭ জন ও মৌলভীবাজারে ৭ হাজার ৭৬৩ জন রয়েছেন।

একই সময়ে সিলেটে ৩২০ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। সুস্থদের মধ্যে ১০৭ জন সিলেট জেলার বাসিন্দা। বাকিদের মধ্যে সুনামগঞ্জের ১৪৫ জন, হবিগঞ্জ ৩ জন, মৌলভীবাজার জেলার ৫৬ জন রয়েছেন।

বিভাগে এ পর্যন্ত ৪৩ হাজার ৭৯৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়েছেন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ২৯ হাজার ৩৬৬ জন, সুনামগঞ্জে ৪ হাজার ৯১৪ জন, হবিগঞ্জ জেলায় ৩ হাজার ৩৮৪ জন ও মৌলভীবাজারে ৬ হাজার ১৩৪ জন সুস্থ হয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে মারা যাওয়া ৮ জনের সকলেই সিলেট জেলার বাসিন্দা। এনিয়ে বিভাগে করোনাভারাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ১ হাজার ৭৫ জন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় সর্বোচ্চ ৮৮৫ জন, সুনামগঞ্জে ৭২ জন, হবিগঞ্জে ৪৬ জন এবং মৌলভীবাজার জেলায় ৭২ জন মারা গেছেন।

এদিকে একই সময়ে সিলেট বিভাগে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১৯ জন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ১৭ জন ও মৌলভীবাজার জেলায় ২ জন করে রয়েছেন।

এ নিয়ে বিভাগে বিভিন্ন হাসপাতালে ৪৮৬ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর মধ্যে সিলেট জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে ৩১৬ জন, সুনামগঞ্জের হাসপাতালে ৩৩ জন, হবিগঞ্জের হাসপাতালে ১৬ জন ও মৌলভীবাজারের হাসপাতালে ২১ জন চিকিৎসাধীন আছেন।

শেয়ার করুন