২৮ জুন ২০২২


মৌলভীবাজারে পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত ৭৩০

শেয়ার করুন

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কাওয়াদিঘির পাড় ও হাকালুকি হাওরসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে ধীরগতিতে নামছে বন্যার পানি। বিভিন্ন রাস্তাঘাট এখনো পানিতে নিমজ্জিত রয়েছে। ভেঙে পড়েছে হাওরাঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থা। দেখা দিয়েছে খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানির সংকট। রয়েছে গবাদিপশুর খাদ্য সংকটও।

অন্যদিকে, জেলার বন্যাদুর্গত এলাকায় পানিবাহিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকে। গত আটদিনে পানিবাহিত রোগে ৭৩০ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় পানিবাহিত বিভিন্ন রোগ ডায়রিয়ায় ৪৯ জন, চর্মে ৫০ জন, জ্বরে ১৪ জন, চোখের ভাইরাস ১২ জন, চোখে আঘাত প্রাপ্ত ছয় জন, সাপে কাটা চারজন, অন্য রোগে ৩৭ জনসহ মোট ১৭২ জন শিশু, নারী ও পুরুষ আক্রান্ত হয়েছেন।

সিভিল সার্জন চৌধুরী জালাল উদ্দীন মোর্শেদ বলেন, বন্যাকবলিত এলাকায় ৭৪টি মেডিকেল টিম কাজ করছে। এ পর্যন্ত জেলায় বিভিন্ন পানিবাহিত রোগে ৭৩০ জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। বিভিন্ন এলাকায় চার জনের মৃত্যু হয়েছে।

জেলা প্রশাসকের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বন্যায় মৌলভীবাজারে সাতটি উপজেলা ও ৪১টি ইউনিয়নের মধ্যে ৫২ হাজার ১১১টি পরিবারের ২ লাখ ৬৩ হাজার ৪০০ সদস্য ক্ষতির মুখে পড়েছেন। ১৩ হাজার ২৬০টি ঘরবাড়ি ও ৪ হাজার ৭৫০ হেক্টর ফসলি জমির ক্ষতি হয়েছে।

শেয়ার করুন