প্রথম স্মার্ট শিক্ষার প্রবক্তা ড. বদরুল হুদা খানকে সিলেটে সংবর্ধনা
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০:২৭

প্রথম স্মার্ট শিক্ষার প্রবক্তা ড. বদরুল হুদা খানকে সিলেটে সংবর্ধনা

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৫/০৩/২০২৪ ০৪:৪০:০৬

প্রথম স্মার্ট শিক্ষার প্রবক্তা ড. বদরুল হুদা খানকে সিলেটে সংবর্ধনা


শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, শিক্ষার্থীদের স্মার্ট শিক্ষা দিয়ে গড়ে তুলতে হবে। শিক্ষার্থীদের সকল ধরনের সুযোগ সুবিধা দিলে শিক্ষার্থীরা স্মার্ট হয়ে উঠতে পারবে। প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনা শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন ধরনের সুযোগ সুবিধা দিয়ে যাচ্ছেন। শিক্ষাক্ষেত্রে বাংলাদেশ আজ অনেক এগিয়ে গেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে স্মার্ট বাংলাদেশ হিসেবে পরিচিত করেছেন। বাংলাদেশকে আরো এগিয়ে নিতে সকলকে মিলেমিশে কাজ করতে হবে।


তিনি আরো বলেন, ড. বদরুল হুদা স্মার্ট ই-লার্নিং এর মাধ্যমে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করে চলেছেন। সিলেট-চট্টগ্রাম ফাউন্ডেশন শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন ধরনের সহযোগিতা করে যাচ্ছে। তাদের এই কার্যক্রম প্রশংসনীয়।


তিনি সোমবার (৪ মার্চ) রাতে সিলেট জেলা পরিষদের হলরুমে সিলেট-চট্টগ্রাম ফ্রেন্ডশিপ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে জর্জ ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক প্রফেসর ড. বদরুল হুদা খানকে সংবর্ধনা, আলোচনা সভা, ও শিক্ষাসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।


ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শহিদুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে ও মহাসচিব উৎফল বড়ুয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন সিলেট-চট্টগ্রাম ফ্রেন্ডশিপ ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোহাম্মদ কাপ্তান হোসেন। সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্য রাখেন জর্জ ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক প্রফেসর ড.বদরুল হুদা খান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইউএস ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন শিক্ষা প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ ড. সীমা খান, ইস্পাহানি টি লিমিটেড সিলেটের বিভাগীয় ব্যবস্থাপক আনিছুজ্জামান পাটোয়ারী, সাবেক সেনা কর্মকর্তা নূরুল হক প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে সিলেট-চট্টগ্রাম ফ্রেন্ডশিপ ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে সংবর্ধিত অতিথিকে সম্মাননা স্মারক এবং সিলেটের বিভিন্ন স্কুল-মাদ্রাসার মেধাবী শিক্ষার্থীদের উৎসাহমূলক ম্যাডেল ও শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

আজকের সিলেট /ডেস্ক/বার্তা/ কে.আর

সিলেটজুড়ে


মহানগর