এমসি কলেজের ইতিহাস বিভাগে তিন শিক্ষক পদায়ন
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৪:০৬

এমসি কলেজের ইতিহাস বিভাগে তিন শিক্ষক পদায়ন

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১২/০২/২০২৪ ২১:০০:০৮

এমসি কলেজের ইতিহাস বিভাগে তিন শিক্ষক পদায়ন


শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে সিলেটের ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ মুরারি চাঁদ (এমসি) সরকারি কলেজের ইতিহাস বিভাগে নতুন ৩ শিক্ষককে পদায়ন করা হয়েছে। পদায়নকৃত শিক্ষকরা হলেন- কিশোরগঞ্জের গুরুদয়াল সরকারি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ও মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ড. মোহাম্মদ আমীর হামজা মোল্লা, একই কলেজের সহকারী অধ্যাপক ইমতিয়াজ তানভীর এবং সিলেট সরকারি কলেজের ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক মো. আব্দুল হাই।

রোববাট মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের এক প্রজ্ঞাপনে সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের ৩ বিসিএস কর্মকর্তাকে এমসি কলেজে পদায়ন করা হয়।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের উপসচিব মোছা রেবেকা সুলতানা স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে পদায়নকৃত ৩ শিক্ষককে আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

এর আগে ৮ ফেব্রুয়ারি বিকালে এমসি কলেজের বঙ্গবন্ধু ছাত্রাবাসে পানির সংকট দূরীকরণ ও ইতিহাস বিভাগে শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে অধ্যক্ষ এবং প্রশাসনিক কার্যালয়ে তালা দিয়ে প্রতিবাদ করেন শিক্ষার্থীরা। ওই দিন বিকাল ৫টা থেকে রাত সোয়া ৯টা পর্যন্ত কার্যালয়ে তালা দিয়ে অধ্যক্ষ, কয়েকজন শিক্ষক ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের অবরুদ্ধ করে রাখেন তারা। ওই দুই দাবিতে ৮ ফেব্রুয়ারি দুপুরে অধ্যক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেন শিক্ষার্থীরা। বৈঠকের ফলাফল আশানুরূপ না হওয়ায় তারা অধ্যক্ষের কার্যালয় ও প্রশাসনিক কার্যালয়ে তালা দেন।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ওইদিন জানান, ইতিহাস বিভাগে শিক্ষকের ৪টি পদ থাকলেও, গত ছয় মাস ধরে ওই বিভাগে কোনো শিক্ষক নেই। বিভাগের অফিস সহকারীরা পরীক্ষা নেওয়া থেকে শুরু করে সব কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। এছাড়া কলেজের বঙ্গবন্ধু হলে দুই বছর ধরে পানির সংকট। প্রতিদিন এক ঘণ্টা করে পানি সরবরাহ করা হয়। তবে তা হলের ১৩০ শিক্ষার্থীর জন্য অপর্যাপ্ত।

পরে অধ্যক্ষ এসব সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা কার্যালয়ের তালা খুলে দিয়ে অধ্যক্ষ ও কর্মকর্তাদের মুক্ত করেন।

এদিকে, শিক্ষার্থীদের দ্বিতীয় দাবিও (ছাত্রাবাসে পানি সংকট দূরীকরণ) দ্রুত পূরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

আজকের সিলেট /ডি/কেআর

সিলেটজুড়ে


মহানগর