আজ রবিবার, ৩১শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

গোলাপগঞ্জ পৌরসভা প্রতিষ্ঠা করেছেন পাপলু !

  • আপডেট টাইম : April 23, 2018 6:00 AM

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাকারিয়া আহমদ পাপলু। গোলাপগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র। বিয়ে প্রতারনাসহ বিভিন্ন কারনে সিলেট নগরী ও গোলাপগঞ্জে বহুল আলোচিত ও সমালোচিত তিনি। সর্বশেষ দুদকের মামলায় কারাভোগও করেছেন।

অভিযোগ রয়েছে, মেয়র থাকাকালিন সময়ে অবৈধ সম্পদের পাহাড় গড়েছেন তিনি। তার নির্যাতন থেকে বাদ যান নি আবাল বৃদ্ধ বনিতা, বাদ পড়েন নি স্থানীয় সাংবাদিকরাও। যার করনে শাসকদলীয় প্রার্থী হয়েও গত পৌরসভা নির্বাচনে কপাল পুড়ে তার।গত পৌর নির্বাচনে মেয়র’র কুরসি (চয়োর) হাতছাড়া হওয়ায় কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়েন। পৌরমেয়র নয় এখন স্বপ্ন দেখছেন এমপি হওয়ার। নিজেকে পরিচয় দিচ্ছেন গোলাপগঞ্জ পৌরসভার প্রতিষ্ঠাতা বলে।

তার প্রচারণায় মনে হচ্ছে, যেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার পৌরসভাটি প্রতিষ্ঠা করেনি, তিনি নিজে থেকেই পৌরসভা প্রতিষ্টা করেছেন এবং তিনি নিজেই এখন স্বঘোষিত প্রতিষ্ঠাতা মেয়র। তার এহেন প্রচারনা নিয়ে পুরো উপজেলা জুড়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। সচেতন মহল তার এই স্বঘোষিত পৌরপ্রতিষ্ঠাতার দাবিকে দেখছেন ভিন্নচোখে ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের একাধিক নেতা বলেন, পাপলুর দ্বারা আওয়ামী লীগের দুর্নাম হচ্ছে। নিজের দুর্নীতির দুর্গন্ধ চাপা দিতে তিনি বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছেন। তিনি পৌরসভা নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয় বরণ করেও এখন সংসদ সদস্য হওয়ার দিবাস্বপ্ন দেখছেন। একটি পৌরসভা কোন ব্যক্তি বা গোষ্টি প্রতিষ্ঠা করতে পারে না। পৌরসভা প্রতিষ্ঠা করে দেশের সরকার। প্রতিষ্টাকালে প্রশাসক নিয়োগ করে শুরু করে কার্যক্রম। পরে দেয়া হয় নির্বাচন। প্রশাসকের স্থলাভিষিক্ত হন নির্বাচিত মেয়র। গোলাপপগঞ্জ পৌরসভার ক্ষেত্রে এর ব্যতিক্রম হয়নি। তাই পাপলু নির্বাচিত সাবেক মেয়র হলেও কখনো গোলাপগঞ্জ পৌরসভার প্রতিষ্ঠাতা হতে পারেন না। তার এসব বিতর্কিত ও অযাচিত বক্তব্য নিয়ে আমরা বিব্রত।

গোলাগগঞ্জে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের এক শীর্ষ নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, তিনি যা পারেন বলুন বরতে থাকুন, নিজেকে জাহির নিজেকে জাহির করতে থ্কাুন। আমরা এসব বিষয় নিয়ে কথা বলবনা। কারন তিনি এখন দিশেহারা। দল ঠিকই সময়মতো তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে গোলাপগঞ্জ পৌরসভার বর্তমান মেয়র সিরাজুল জব্বার চৌধুরী বলেন, গোলাপগঞ্জ পৌরসভা প্রতিষ্ঠার পর আমি সরকার নিয়োজিত এর প্রশাসক ছিলাম। কিন্তু আমিতো নিজেকে প্রতিষ্ঠাতা প্রশাসক বলে দাবী করি না। তাছাড়া কোন পৌরসভাপ কোন ব্যক্তি কর্তৃক প্রতিষ্ঠাতা হয়না, প্রতিষ্ঠা করে সরকার। এজন্য কোন ব্যক্তি নিজেকে পৌরসভার প্রতিষ্ঠাতা দাবী করতে পারেন না। যদি কেউ এরকম দাবী করে থাকেন তবে তা সম্পূর্ণ অনৈতিক।

বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে গোলাপগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র জাকারিয়া আহমদ পাপলু বলেন, প্রতিষ্ঠাতা মেয়র লেখা যাবেনা এরকম কি কোনো কিছু আইনে লেখা আছে। পৌরসভাটি প্রতিষ্ঠার পর দুইজন প্রশাসক দায়িত্ব পালন করলেও আমি জনগনের ভোটে নির্বাচিত মেয়র হিসেবে আমাকে প্রতিষ্ঠাতা মেয়র হিসেবে সবাই জানে।

প্রসঙ্গত, ২০১৫সালে মেয়র থাকাকালে জাকারিয়া আহমদ পাপলু ১২টি ভুয়া প্রকল্প দেখিয়ে ৬ লাখ ২৯ হাজার ৭৭২ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে দুদকের মামলায় ইতিমধ্যে কারাভোগও করেছেন এবং বর্তমানে তিনি উচ্চ আদালতের জামিনে রয়েছে বলে জানা গেছে।

(আজকের সিলেট/২৩ এপ্রিল/এসটি/ঘ.)

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ