আজ সোমবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

জমজমাট নগরীর ইফতারির দোকান

  • আপডেট টাইম : May 18, 2018 4:00 PM

নিজস্ব প্রতিবেদক : নগরীর ইফতার সামগ্রীর দোকানগুলো রমজানের শুরু থেকেই বাহারি সাজে সেজেছে। রাস্তার পাশে অস্থায়ী ইফতারির দোকান ও বিভিন্ন হোটেলের সামনে নানা পদের মুখরোচক ইফতার সামগ্রী দিয়ে ক্রেতাদের নজর কাড়ার চেষ্টা করছেন বিক্রেতারা।

প্রথম রোজার দিন বিকেল থেকে প্রতিটি ইফতারির দোকানে রোজাদারদের ভিড় দেখা গেছে। বাসায় নানা রকমের ইফতার সামগ্রী তৈরি হলেও অনেকেই দোকান থেকে ইফতারির বিভিন্ন পদ কিনে নিচ্ছেন। পবিত্র রমজান মাসের অন্যতম অনুষঙ্গ ইফতার সামগ্রী।

ইফতারের সময় সকল রোজাদারই চান সাধ্যমতো মুখরোচক পদ দিয়ে ইফতার করতেন। তাই বিকেল থেকেই প্রতিটি বাসায় পড়ে যায় ইফতার তৈরির ধুম। বাসার তৈরি ইফতারের সঙ্গে যোগ হয় বাইরে থেকে কিনে আনা ইফতার সামগ্রী।

শুক্রবার নগরীর বেশ কয়েকটি দোকান ঘুরে দেখা গেছে, বিকেল থেকেই প্রতিটি ইফতার সামগ্রীর দোকানে ক্রেতারা ভিড় করে। গরম জিলাপী, আলুর চপ, নানা জাতের বড়াসহ বিভিন্ন রকমের ইফতার সামগ্রী কিনে নিয়ে যাচ্ছেন রোজাদাররা। তবে গত বছরের তুলনায় এবার নগরীতে ইফতারী সামগ্রীর দাম কিছুটা বেশী।

জিলাপী প্রতি কেজি ৯০-১৫০ টাকা, শামী কাবাব প্রতি পিচ ৮ টাকা, আখনী প্রতি কেজি ১৮০ থেকে ২৫০ টাকা, চানা ভুনা ১০০ টাকা, পিঁয়াজু প্রতি পিচ ২ থেকে ৫ টাকা, বেগুনী প্রতি পিস ৩-৫ টাকা, শাকসহ বিভিন্ন জাতের বড়া ৩-৫ টাকা, বাখরখানি প্রতি পিস ৫-২৫ টাকা ও আলুর চপ প্রতি পিচ ৩-৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

সরেজমিনে জিন্দাবাজর গিয়ে দেখা যায়,  ইফতারির পসরা সাজিয়ে রেখেছেন দোকানিরা।বাহারি ও মুখোরোচক ইফতারির মধ্যে রয়েছে- শিকের সঙ্গে জড়ানো সুতি কাবাব, জালি কাবাব, শাকপুলি, টিকা কাবাব, আস্ত মুরগির কাবাব, বঁটিকাবাব, কোফতা, চিকেন কাঠি, শামি কাবাব, ডিম চপ, কাচ্চি, তেহারি, মোরগ পোলাও, কবুতর ও কোয়েলের রোস্ট, দইবড়া, হালিম, লাচ্ছি, বিভিন্ন ধরনের কাটলেট, শরবত, ছানামাঠা, কিমা পরোটা, ছোলা, মুড়ি, বেগুনি, আলুর চপ, পিয়াজু,জিলাপিসহ নানা পদের খাবার।

গত কয়েকবছর ধরে সিলেটে ঢাকার ঐতিহ্যবাহী ইফতারির আইটেম – ‘বড় বাপের পোলায় খায়’ সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। এবারও আশা করা যাচ্ছে ঢাকাই এই আইটেম খুব শীগ্রই তুলবেন দোকানীরা।

নগরীর জিন্দাবাজারে ইফতার ক্রয় করতে আসা মেন্দিবাগের জামিল আহমদ জানান, বাড়িতে অনেক রকম ইফতার আইটেম তৈরি করা হয়। এরপরও দোকানে অনেক নতুন আইটেম পাওয়া যায় তাই দোকানে আসা। তবে ইফতার সামগ্রীর দাম একটু বেশী।

বন্দরবাজারের এর ইফতার সামগ্রী বিক্রেতা ফরিদ উদ্দিন বলেন, বিকেল থেকে ইফতার কিনতে রোজাদাররা ভিড় করছেন। ইফতার সামগ্রীর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে জিলাপী।

(আজকের সিলেট/১৮ মে/ডি/কেআর/ঘ.)

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি শেয়ার করুন..

এই সম্পর্কিত আরও নিউজ